১২ আগস্ট ২০২০
ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় অভিমত

কবি ফররুখ আহমদ ছিলেন বাংলার সাহিত্যাকাশে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র

-
24tkt

আধুনিক বাংলা সাহিত্যের অন্যতম জনপ্রিয় কবি ফররুখ আহমদ স্মরণে ফররুখ গবেষণা ফাউন্ডেশন গত ২ জুলাই রাত ৯টায় মাসিক ভার্চুয়াল সাহিত্য সভার আয়োজন করে।
বক্তাগণ বলেন, কবি ফররুখ আহমদ ছিলেন বাংলার সাহিত্যাকাশে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র। অধ্যাপিকা রোকেয়া পারভিন তার আলোচনায় বলেন, কবি ফররুখ আহমদ ছিলেন মানবতাবাদী কবি। সাম্প্রদায়িক সঙ্ঘাত এবং ভেদাভেদ তাকে মর্মাহত করত। অন্যায়ের বিরুদ্ধে তার কলম ছিল তীক্ষè ছুরির ন্যায়। নিপীড়িত মানুষের হাহাকার ফুটে উঠেছে তার লেখায়। ছন্দের বহুমাত্রিক মালা নিয়ে তিনি অবলীলায় লিখেছেন অপার দক্ষতায়।
কবিপুত্র কবি ও সাংবাদিক আহমদ আখতার কবি ফররুখ আহমদের সঙ্গীত চর্চার অনুপুঙ্খ আলোচনা করে বাংলা সঙ্গীত জগতে তার অবস্থান তুলে ধরেন। কবিতার অন্যান্য দিক বিশেষ করে কাব্যনাট্য, মহাকাব্য, গীতিনাট্যসহ সব ধরনের রচনায় ছিল তার বিচরণ ও প্রতিষ্ঠা। তিনি বিশেষ করে ঢাকা বেতারে এক সময় নিয়মিত তার গান পরিবেশনের স্মৃতি তুলে ধরে আধুনিক বাংলা গানের জগতে তার শক্তিশালী অবস্থান ব্যাখ্যা করে যে বিষয়টি নতুন প্রজন্ম তেমন জ্ঞাত নয়। ফররুখের গান নিয়ে ইদানীংকালের তৎপরতায় তিনি ফররুখ চর্চায় নতুন মোড় নিয়েছে বলে অভিমত দেন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক আলোচনায় বলেন কবি ফররুখ আহমদ বাংলা সাহিত্যে ব্যতিক্রমী ধারার কাব্য চর্চা করেছেন। সৃজনশীল কবিরা আবেগ, অনুভূতি, স্বপ্ন-কল্পনা, বক্তব্যকে ফুটিয়ে তুলতে নতুন ভাষা, ছন্দ, আঙ্গিক ইত্যাদি নির্মাণ করেন। ফররুখ আহমদের রচনায় আমরা সে পরিচয় পাই। বাংলা শব্দের ধ্বনির সাথে আরবি-ফারসি শব্দের ধ্বনি সাযুজ্যে ফররুখ আহমদের কবিতা যেমন পেয়েছে নতুন কাব্যভাষা তেমনি তা হয়ে উঠেছে আবৃত্তির জন্য সুষম। মাত্রাবৃত্ত ছন্দের ছয় মাত্রার সমগতির কয়েকটি পর্বে চরণান্তের খণ্ডপর্বসহ আবৃত্তিযোগ্য একটি সহজ অথচ শিল্পিত প্রবাহ নির্মিত হয়েছে তার কবিতায়। এ জন্য কবি হয়ে ওঠার জন্য, আবৃত্তিকার হওয়ার জন্য ফররুখের কবিতার কাছে আসতে হবে। তিনি একপর্যায়ে কবি ফররুখ আহমদকে নিবেদিত তার স্বরচিত পুঁথিপাঠ করেন।
গবেষণা ফাউন্ডেশনের সভাপতি অধ্যাপক মুহাম্মদ মতিউর রহমান বলেন, ফররুখ আহমদ মৌলিক প্রতিভাবান শক্তিমান কবি। তার কাব্যের ভাব, বিষয়, ভাষা, আবেদনও বহু বিচিত্র। তিনি ছিলেন বহুমাত্রিক কবি। ইতিহাস, ঐতিহ্য সচেতনতার সাথে কালিক ভাবনা আত্মিক সংমিশ্রণের সাথে কবি ফররুখ মহৎ সাহিত্য সৃষ্টি করেছেন। ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক আবদুল হান্নান ফররুখ ফাউন্ডেশনের উদ্দেশ্য, কর্মকাণ্ড এবং ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।
অনুষ্ঠানে ফররুখকে নিবেদিত কবিতা পাঠ করেন কবি মানসুর মুজাম্মিল, কবি ফরিদ সাইদ, কবি রোকসানা সুখী প্রমুখ।

 


আরো সংবাদ