০৫ জুন ২০২০

মাজেদের ফাঁসি দ্রুত কার্যকর চায় আ’লীগ

-

সদ্য গ্রেফতার হওয়া বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি বরখাস্তকৃত ক্যাপ্টেন আব্দুল মাজেদের দ্রুত ফাঁসির রায় কার্যকর চায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। দলটির সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের গতকাল বুধবার এক বিবৃতিতে ফাঁসির রায় কার্যকরের আহ্বান জানিয়ে একই সাথে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পলাতক বাকি আসামিদেরও দ্রুত দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসির রায় কার্যকরের দাবি জানান।
করোনা সঙ্কট প্রসঙ্গে কাদের বলেন, আমরা একটি বৈশ্বিক ও জাতীয় সঙ্কটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি। এখন আমাদের প্রধানতম কাজ হচ্ছে, করােনাভাইরাসে সৃষ্ট সঙ্কট ঐক্যবদ্ধভাবে মোকাবেলা করা। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে করোনা সঙ্কট মোকাবেলার পাশাপাশি দলের নেতাকর্মীসহ সারা দেশের জনগণকে মতলবী মহলের ষড়যন্ত্রমূলক তৎপরতা সম্পর্কে সতর্ক থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।
আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, সংবিধান ও দেশের প্রচলিত আইনের সব বিচারিক প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার রায় প্রদান করা হয়েছিল। বিচারিক আদালতের দেয়া ফাঁসির রায় হাইকোর্ট হয়ে সুপ্রিম কোর্টে গেলে সুপ্রিম কোর্ট ফাঁসির রায় বহাল রাখে। এই খুনিদের ফাঁসির রায় সম্পূর্ণ বিচারিক প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। দেশের সংবিধান ও প্রচলিত ফৌজদারি কার্যবিধি অনুযায়ী ফাঁসির রায় কার্যকরের ক্ষেত্রে আইনগত কোনো বাধা নেই এবং নির্দিষ্ট মেয়াদে ফাঁসির রায় কার্যকর করার কথা আইনে উল্লেখ আছে।
তিনি বলেন, ফাঁসির রায় কার্যকরের জন্য আইনসঙ্গতভাবে যা করার সেটা শুরু হয়ে গেছে বলে সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। আমরা আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে অবিলম্বে ফাঁসির রায় কার্যকর করার দাবি জানাচ্ছি। মাজেদের গ্রেফতারের পর বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আরো পাঁচ দণ্ডপ্রাপ্ত খুনি-রাশেদ চৌধুরী, নুর চৌধুরী, শরিফুল হক ডালিম, কর্নেল রশিদ ও মুসলেহউদ্দিন রিসালদার পলাতক আছে। তাদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য দীর্ঘ দিন ধরে সরকারের বিভিন্ন সংস্থার প্রচেষ্টা অব্যাহত রয়েছে এবং সেটা আরো জোরদার করার দাবি জানাচ্ছি।
কাদের বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে এই জাতির অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করা হয়। পৈশাচিক ও নারকীয় এই হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে শুধু ব্যক্তি বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়নি, একটি দল ও তার আদর্শকে নিশ্চিহ্ন করার অপচেষ্টা করা হয়নি বরং একটি সদ্য স্বাধীন জাতি রাষ্ট্রের ভবিষ্যৎ সম্ভাবনাকে গলা টিপে হত্যা করার অপচেষ্টা করা হয়েছিল।


আরো সংবাদ

যুগ্ম সচিব পদে ১২৩ কর্মকর্তার পদোন্নতি খাগড়াছড়িতে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী নারীকে কুপিয়ে হত্যা সিলেটে রঙ্গখেলা শেষে নারীকে কুয়ায় নিক্ষেপ বরিশালে করোনা উপসর্গ নিয়ে দুজনের মৃত্যু, ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৬৪ বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলীর ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ পরিদর্শন গণপরিবহনে ভাড়া বৃদ্ধি ও স্বাস্থ্য বিভাগে দূর্নীতি জনগণকে জিম্মি করার শামিল আবার আলোচনার প্রস্তাব দিলেন ট্রাম্প; জবাবে যা বলল ইরান ডেঙ্গু প্রতিরোধে শনিবার থেকে ডিএনসিসিতে চিরুনি অভিযান রাজবাড়ীতে ১৫ দিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উত্তোলন বিশ্বকাপের তৃতীয় স্টেডিয়াম নির্মাণ সম্পন্ন করেছে কাতার নবীনগরে তিন পরিবারে ১৯ জনের করোনা শনাক্ত

সকল





justin tv