২৬ মে ২০২০
শতাধিক শ্রমিক নেতার বিবৃতি

মাওলানা সাঈদীর মুক্তি দাবি

-

দেশের শীর্ষ শ্রমিক নেতৃবৃন্দ এক যৌথ বিবৃতিতে মানবিক, ধর্মীয় ও বয়স বিবেচনায় বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন মুফাসসিরে কুরআন আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি দেয়ার জন্য সরকারের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন।
গতকাল বুধবার শতাধিক শ্রমিক নেতৃবৃন্দ এই বিবৃতি প্রদান করেন। নেতৃবৃন্দ বলেন, আল্লামা সাঈদী একজন সর্বজন শ্রদ্ধেয় আলেমেদ্বীন, তার হার্টে পাঁচটি রিং বসানো এবং ডায়াবেটিসসহ বার্ধ্যক্যজনিত নানান জটিল রোগে আক্রান্ত। ৮১ বছরের বয়োবৃদ্ধ আল্লামা সাঈদী স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে অক্ষম। তাই সরকারকে অনুরোধ করব মানবিক, ধর্মীয় ও বয়স বিবেচনায় আল্লামা সাঈদীকে মুক্তি দিয়ে জাতীয় দুর্যোগ মোকাবেলায় জাতীয় ঐক্যের ভীত রচনা করুন। তাই আমরা রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানের কাছে আল্লামা সাঈদীর আশু মুক্তি দাবি করছি। নেতৃবৃন্দ আশা করেন, সরকার ও রাষ্ট্র বর্ষীয়ান এ মুফাসসিরের প্রতি সদয় হয়ে তাকে মুক্তি দিবেন। বিবৃতিদাতারা হলেনÑ বাংলাদেশ রিকশা শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি হারুনুর রশিদ খান, সাধারণ সম্পাদক লস্কর মোহাম্মদ তসলিম, জাতীয় শ্রমিক কর্মচারী জোটের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম রাব্বানি জামিল, ন্যাশনাল ওয়াকার্স ফেডারেশনের সভাপতি আলমগীর মজুমদার, বাংলাদেশ শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম এ ফায়েজ, বাংলাদেশ স্থল বন্দর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মজিবুর রহমান ভূঁইয়া, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, বাংলাদেশ চাতাল শ্রমিক ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় সভাপতি গোলাম রব্বানী, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মতিন, বাংলাদেশ কৃষিজীবী শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হাসান রাজু, জাতীয় গার্মেন্ট শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি শফিকুল ইসলাম, জাতীয় শ্রমিক ফোরামের কেন্দ্রীয় সভাপতি এম জাহাঙ্গীর হোসেন, টেক্সটাইল শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী সামিমা আক্তার শিরিন, গার্মেন্ট দর্জি শ্রমিক ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী সাহিদা সরকার, বাংলাদেশ প্রগতিশীল গার্মেন্ট শ্রমিক-কর্মচারী ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভানেত্রী কামরুন নাহার, বাংলাদেশ শ্রমিক মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি আব্দুল হালিম, ব্যাংক কর্মচারী কল্যাণ ফেডারেশনেরর সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আহসান উল্লাহ, বাংলাদেশ ব্যক্তি মালিকানারি-রোলিং মিলস শ্রমিক কর্মচারী ফেডারেশনের সভাপতি আবুল হাশেম, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, ইসলামী ব্যাংক কর্মচারী কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি আবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আবুল আলা মাসুদ, বাংলাদেশ টিঅ্যান্ডটি শ্রমিক কর্মচারী আদর্শ ফেডারেল ইউনিয়নের সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মো: শামিম, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি শহিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক, আধুনিক প্রেস শ্রমিক-কর্মচারী কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক জি এম মোস্তফা, লতিফ বাওয়ানী পাটকল শ্রমিক কল্যাণ ইউনিয়নের সভাপতি খলিলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মো: ইসমাইল, ডেমরা রিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি
সাঈদীর মুক্তি দাবি সাতকানিয়ার দুই শতাধিক আলেমের
লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, করোনা পরিস্থিতিতে আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি চেয়ে সংবাদপত্রে বিবৃতি দিয়েছেন চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার ১৭ ইউনিয়ন ও এক পৌরসভার প্রায় দুই শতাধিক বিশিষ্ট ওলামা-মাশায়েখ।
বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারীরা হলেন, প্রখ্যাত ওয়ায়েজ আলহাজ মাওলানা মীর মাহবুবুল বশর আল কাদেরী, সাবেক সুপার কাজী মাওলানা আব্দুর রহমান, মাওলানা আব্দুর রশিদ আলকাদেরী, ছদাহার পীর মাওলানা আব্দুল মজিদ, মাওলানা মীর রহমত উল্লাহ, মাওলানা তোফায়েল আহমদ, মাওলানা ফৌজুর কবির, মাওলানা আবু আহমদ, মাওলানা নেজাম উদ্দিন, মাওলানা আহমদুর রহমান, মাওলানা খানে আলম, মাওলানা মাহমুদুল হক, মাওলানা আবুল হোসাইন, মাওলানা আবুল হাসেম, মাওলানা আবু তাহের, মাওলানা মনির উদ্দিন, মাওলানা রিদুওয়ান হক, মাওলানা মাহাবুব রহমান, মাওলানা জমির উদ্দিন, মাওলানা আবুল কাসেম, মাওলানা ফরিদুল আলম, মাওলানা নুরুল হক, মাওলানা আবদুল খালেক প্রমুখ।
চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের বিবৃতি
চট্টগ্রাম ব্যুরো জানায়, বিশ্ববরেণ্য মুফাসসিরে কুরআন, জাতীয় সংসদের সাবেক সংসদ সদস্য হজরতুল আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তির দাবি জানিয়ে চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ গতকাল বুধবার এক যৌথ বিবৃতি প্রদান করেন।
বিবৃতিদাতা চট্টগ্রামের ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ হলেনÑ নাছির উদ্দিন আহমদ চৌধুরী, ফয়সাল মুহাম্মদ ইউনুছ, এম এ গাফ্ফার, এস এ আলমগীর কবির, এম শওকত হোসেন, মহিউদ্দিন শাহজাহান, এম ফজলুল হক, মুহাম্মদ ইউসুফ, মুহাম্মদ ইসমাইল, আবু বকর, কামাল উদ্দিন, রাশেদুল আজম মঞ্জু, আহমদ রশিদ আমু প্রমুখ।


আরো সংবাদ