৩০ মার্চ ২০২০

চলে গেলেন চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিচালক পানু

-

চলে গেলেন চলচ্চিত্র প্রযোজক-পরিচালক মতিউর রহমান পানু। তিনি দেশের অন্যতম ব্যবসাসফল ছবি ‘বেদের মেয়ে জোছনা’র প্রযোজক। মতিউর রহমান পানু পরে সিনেমা পরিচালনায়ও হয়েছেন সফল। গত মঙ্গলবার রাত ১১টা ২০ মিনিটে ঢাকার উত্তরায় নিজ বাসায় তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।
প্রযোজক সমিতির সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু জানান, বেশ কিছুদিন ধরে পানু অসুস্থ ছিলেন। তিনি নানা রকমের বার্ধক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন।
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতি ও বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি মতিউর রহমান পানুর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছে।
মতিউর রহমান পানু ১৯৩৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর বগুড়া সদরে জন্মগ্রহণ করেন। বেড়ে ওঠা বগুড়াতেই। তিনি ১৯৬২ সালে বগুড়া সেন্ট্রাল হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন এবং কিছুদিন পর বগুড়া জেলা থেকে ঢাকা চলে আসেন। ১৯৬৪ সালে তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনে (বিএফডিসি) পা রাখেন। প্রথমে তিনি কয়েকজন চলচ্চিত্র পরিচালকের সহকারী হিসেবে কাজ করেন, তাদের মধ্যে দারাশিকো, সৈয়দ আউয়াল ও আকবর কবির পিন্টু ছিলেন অন্যতম। তবে পরিচালক বাবুল চৌধুরীর সহকারী হিসেবেই বেশি কাজ করেছেন পানু।
আঁকাবাঁকা, টাকা আনা পাই, প্রতিশোধসহ বেশ কয়েকটি ছবির সাথে যুক্ত ছিলেন তিনি। ১৯৭৯ সালে পানু ‘হারানো মানিক’ নামের ছবি পরিচালনা করে পরিচালক হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। তার পরিচালিত ও প্রযোজিত ছবির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ‘বেদের মেয়ে জোছনা’, ‘মোল্লা বাড়ির বউ’, ‘মনের মাঝে তুমি’, ‘টাইগার নাম্বার ওয়ান’, ‘হারানো মানিক’, ‘আপন ভাই’, ‘নাগ মহল’, ‘নির্দোষ’, ‘সাহস’, ‘মান মর্যাদা’, ‘নির্যাতন’ ও ‘সাথী’।


আরো সংবাদ