০৫ জুলাই ২০২০

শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনিতে অভিযান উচ্ছেদ হলো কয়েক শ’ ঘর, দোকানপাট ও ক্লাব

-

রাজধানীর শাহজাহানপুর থানাধীন রেলওয়ে কলোনির বিশাল জায়গা দখল করে অবৈধভাবে গড়ে তোলা ‘বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্লাবসহ’ কয়েক শ’ বসতভিটা, দোকানপাট বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে রেলওয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নজরুল ইসলামের উপস্থিতিতে সব অবৈধ স্থাপনা ভেঙে দেয়া হয়। সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত চলে এই অভিযান। এ সময় এলাকায় উৎসুক জনতার ভিড় জমে যায়।
গতকাল সন্ধ্যার আগে শাহজাহানপুর থানার সাব ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমান নয়া দিগন্তকে বলেন, পুরো এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়েছে। বিল্ডিং বাদে যত অবৈধ স্থাপনা আছে সবগুলোই উচ্ছেদ করা হবে। অভিযান চলবে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। তিনি বলেন, উচ্ছেদ অভিযানে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্লাবসহ ছোট ছোট আনুমানিক তিন শতাধিক ঘর, টং দোকান বুলডোজার দিয়ে ভেঙে ফেলা হয়েছে। রেলওয়ের জায়গায় কোনো দোকানপাটও থাকতে পারবে না বলে ইতোমধ্যে এলাকায় রেলওয়ের পক্ষ থেকে মাইকিং করা হয়েছে।
স্থানীয়দের কাছ থেকে অভিযোগ পাওয়া গেছে, প্রভাবশালী রাজনৈতিক ব্যক্তিদের ছত্রছায়ায় রেলওয়ের জায়গা দখল করে শাহজাহানপুরে হাজার হাজার বসতবাড়ি গড়ে তোলা হয়। এসব ঘর ভাড়া দিয়ে প্রতি মাসে কোটি টাকার ওপরে ভাড়া উঠানো হতো। পরে দখল পাকাপোক্ত করতে রেলওয়ের অসাধু কর্মকর্তাদের কাছে একটি ভাগ পৌঁছে দেয়া হতো। ওই এলাকায় বখাটেদের আড্ডার পাশাপাশি জুয়া ও মাদকের আসরও জমতো প্রতি রাতে। এসব অভিযোগের বিষয়ে সাব ইন্সপেক্টর মিজানুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি এর সাথে কারা জড়িত তাদের নাম জানেন না বলে জানান।
অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া বাংলাদেশ রেলওয়ে ল্যান্ড অ্যান্ড বিল্ডিংয়ের ডেপুটি কমিশনার মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, ওপর মহলের নির্দেশে আমরা এ উচ্ছেদ অভিযান চালাচ্ছি। এখানে কোনো অবৈধ স্থাপনা থাকতে দেয়া হবে না।

 


আরো সংবাদ