২৭ নভেম্বর ২০২২, ১২ অগ্রহায়ন ১৪২৯, ২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

মানি লন্ডারিং মামলায় জামিন পেলেন জ্যাকুলিন

জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ - ছবি : সংগৃহীত

পাতিয়ালা কোর্টের নির্দেশে আপতত বড় স্বস্তিতে বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজ। মঙ্গলবার ২০০ কোটি টাকা মানি লন্ডারিংয়ের মামলায় তার জামিন মঞ্জুর করেছে ভারতীয় আদালত।

ভারতীয় মুদ্রায় ২ লাখ টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে জামিন পেয়েছেন এই শ্রীলঙ্কান সুন্দরী। জ্যাকুলিনের অন্তর্বতীকালীন জামিনের মেয়াদ আজই শেষ হচ্ছিল, নায়িকাকে এই মামলায় বড় রেহাই দিলো দিল্লির আদালত।

ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা ইডি’র তরফে আদালতের কাছে জ্যাকুলিনের জামিন খারিজের আবেদন জানানো হয়েছিল, বলা হয়েছিল- দেশ ছেড়ে পালাতে পারেন জ্যাকুলিন। পাশাপাশি এই মামলার তথ্য-প্রমাণ বিনষ্টের চেষ্টা করছেন জ্যাকুলিন- এমনও অভিযোগও নায়িকার নামে। যদিও সেই সম্ভাবনা আগেই উড়িয়ে দিয়েছেন অভিনেত্রীর আইনজীবী। তদন্ত আগেই শেষ হয়েছে, ইতোমধ্যেই আদালতে চার্জশিট জমা পড়েছে, নতুন করে তদন্তের প্রয়োজনে জ্যাকুলিনকে হেফাজতে নেওয়ার দরকার নেই- অভিনেত্রীর কৌঁসুলির এই দলিল মেনে নিয়েছে আদালত।

এর আগে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ৫০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে অন্তর্বর্তী জামিন পেয়েছিলেন ‘রাম সেতু’ অভিনেত্রী।

বিচারক শৈলেন্দ্র মালিকের এজলাসে মঙ্গলবার শুনানি হয় এই মামলার। হাজির ছিলেন জ্যাকুলিন নিজে।
জ্যাকুলিনকে এতদিনে কেন গ্রেফতার করা হয়নি? তা নিয়ে আগেই আদালতের ভর্ৎসনার মুখে পড়েছে কেন্দ্রীয় সংস্থা। মামলার প্রশ্ন-জবাব চলাকালীন ইডিকে বিচারক প্রশ্ন করেন, ‘কারো মুখ দেখে পদক্ষেপ নিবেন না। যদি তথ্য-প্রমাণ থেকে থাকে তাহলে এতদিন তদন্ত চলাকালীন কেন জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজকে গ্রেফতার করা হয়নি? অন্য অভিযুক্ত (সুকেশ চন্দ্রশেখর) তো জেলে রয়েছেন।’

গত ১৭ আগস্ট দিল্লি হাইকোর্টে পেশ করা সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) স্পষ্ট জানিয়েছে, জেলবন্দী প্রতারক সুকেশ চন্দ্রশেখরের থেকে লাভবান হয়েছেন জ্যাকুলিন। কনম্যান সুকেশ চন্দ্রশেখরের কালিমালিপ্ত অতীতের কথা জেনেও কেবলমাত্র টাকার লোভের তার সাথে ঘনিষ্ঠ হন অভিনেত্রী, দাবি ইডির।

যদিও সব অভিযোগ উড়িয়ে জ্যাকুলিনের দাবি, তিনি নিজেই প্রতারণার শিকার। সুকেশ চন্দ্রশেখর ও তার সহযোগীদের অপরাধমূলক কাজের ফল ভুগতে হচ্ছে তাকে। নিজেকে ‘পরিস্থিতির শিকার’ বলে উল্লেখ করেছেন জ্যাকুলিন।

২০২১ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ২০০ কোটির আর্থিক কেলেঙ্কারির মামলায় ইডির হাতে গ্রেফতার হন সুকেশ ও তার স্ত্রী লীনা মারিয়া পল। গ্রেফতারির পর সুকেশের সাথে জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজের ঘনিষ্ঠতার কথা প্রকাশ্যে আসে। ফাঁস হয় দুজনের অন্তরঙ্গ ছবিও। সুকেশ তদন্তকারীদের জানান, অভিনেত্রীকে ৫.৭১ কোটি টাকার উপহার দিয়েছেন তিনি।


আরো সংবাদ


premium cement
বিপিডিবি’র আর্থিক ক্ষতি দুই-তৃতীয়াংশ বেড়ে ৪৮ হাজার কোটি টাকা চীনের জিরো কোভিড নীতির বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ পাবনার আলোচিত ১২ কৃষকের জামিন মঞ্জুর দেশজুড়ে নৌযান শ্রমিকদের ধর্মঘটে চট্টগ্রাম বন্দরে পণ্য খালাস বন্ধ দ. কোরিয়ায় হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে নিহত ৫ ১০ দফা দাবিতে ভোলায় অনির্দিষ্টকালের লঞ্চ ধর্মঘট শপথ নিয়েছেন কাজাখের প্রেসিডেন্ট তোকায়েভ ইউক্রেনীয়দের নব্য নাৎসি শাসকদের কবল থেকে মুক্ত করা হবে : লাভরভ রাজশাহীতে মালিকদের পরিবহন ধর্মঘটের ইঙ্গিত ঢাকা শহরের সব খেলার মাঠ উদ্ধার করা হবে : মেয়র আতিকুল মোটরসাইকেলে বিশ্বভ্রমণে বেরিয়ে সৌদিতে এসে ইসলাম গ্রহণ জাপানি যুবকের

সকল