০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

মাদক কাণ্ডে জোর করেই ফাঁসানো হয়েছিল আরিয়ানকে

মাদক কাণ্ডে জোর করেই ফাঁসানো হয়েছিল আরিয়ানকে - ছবি : সংগৃহীত

মাদক মামলায় বলিউড বাদশাহ শাহরুখ খানের বড় ছেলে আরিয়ান খান নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ার পরই আঙুল উঠছে তদন্ত প্রক্রিয়ার দিকে। শুক্রবার কেন্দ্রীয় মাদক নিয়ন্ত্রক সংস্থা (এনসিবি) আরিয়ানের বিরুদ্ধে কোনো তথ্য প্রমাণ মেলেনি।

বহু নাটকীয়তার পর শুক্রবার আরিয়ান খানকে মাদক মামলা থেকে বেকসুর খালাস দেয় এনসিবি। তবে শুধু শুধু তারকা সন্তানের নাম জড়িয়ে হয়রানি কেন? সে নিয়ে সরব হলো বিশেষ তদন্তকারী দল (সিট)।

গত বছর এনসিবি যে ভাবে আরিয়ান খানসহ ১৯ জনকে গ্রেফতার করেছিল, তাতে একাধিক আইনের ফাঁক রয়েছে বলেই মনে করছেন সিট সদস্যরা। তাদের প্রশ্ন, ইচ্ছা করে মাদক কাণ্ডে ফাঁসানো হয়নি তো আরিয়ানকে?

সিটের বক্তব্য, তদন্তে প্রথম যে ফাঁক ধরা পড়ছে সেটি হলো বাধ্যতামূলক শারীরিক পরীক্ষা না করানোর সিদ্ধান্ত। প্রমোদতরীতে অভিযান চালিয়ে আরিয়ান ও তার বন্ধুদের যখন তুলে নিয়ে যাওয়া হলো তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হলো না কেন? তারা মাদক সেবন করে থাকলে সেখানেই তো ধরা পড়ত।

বিশেষ তদন্তকারী সংস্থার প্রশ্ন ২০২১ সালের ৩ অক্টোবর আরিয়ানের প্রমোদতরীতে অভিযান চালানো সময় কোনো ভিডিও রেকর্ড করা হয়নি কেনো? সিট সে নিয়েও দৃষ্টি আকর্ষণ করে। আনুষঙ্গিক অনেক অভিযোগের পিছনেও যথেষ্ট প্রমাণের অভাব রয়েছে বলে মনে করছে সিট।

এদিকে মমলার চার্জশিট আদালতে পেশ হতেই নড়েচড়ে বসেছে কেন্দ্র। এনসিবির সাবেক কর্মকর্তা সমীর ওয়াংখেড়ের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

সূত্র : আনন্দবাজার


আরো সংবাদ


premium cement