০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

আরিয়ানকে গাঁজা জোগারের আশ্বাস দিয়ে ছিলেন অনন্যা

আরিয়ানকে গাঁজা জোগারের আশ্বাস দিয়ে ছিলেন অনন্যা - ছবি : সংগৃহীত

মাদক মামলায় মূল অভিযুক্ত শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ানের সাথে বহুবার হোয়াটসঅ্যাপে কথা হয়েছিল বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পাণ্ডের। সেই সব কথোপকথনে বার বার উঠেছিল মাদক প্রসঙ্গও। এমনকি এনসিবি-র হাতে আসা একটি কথোপকথনে আরিয়ানকে গাঁজার জোগান দেওয়ার আশ্বাসও দিতে দেখা যায় অনন্যাকে। যদিও এনসিবি জানিয়েছে, অনন্যার বিরুদ্ধে গাঁজা সংগ্রহ বা সরবরাহের কোনো প্রমাণ এখনো হাতে পায়নি তারা। অনন্যাও পাল্টা দাবি করেন, নিছক রসিকতা করতেই ওই সব কথা বলেছিলেন তিনি।

শুক্রবার মাদক মামলায় দ্বিতীয় দফা জেরার জন্য সকাল ১১টার এনসিবি ডেকে পাঠিয়েছিল অনন্যাকে। অনন্যা ঠিক সময়ে সেখানে হাজির হয়েছিলেন। পরে এনসিবি দফতরে গোয়েন্দাদের সাথে অনন্যার কী কথাবার্তা হয়েছে, তা প্রকাশ করে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম।

জানা যায়, গাঁজার জোগান চেয়ে হোয়াটসঅ্যাপে অনন্যাকে অনুরোধ করেছিলেন আরিয়ান। জবাবে অনন্যা বলেন, ‘আমি ব্যবস্থা করব।’ এনসিবি-র একটি সূত্রকে উদ্ধৃত করে এই কথোপকথন প্রকাশ করেছে সংবাদ সংস্থাটি। তারা জানিয়েছে, এই কথোপকথনটি ছাড়াও বহু বার মাদক নিয়ে কথা হয়েছে আরিয়ান এবং অনন্যার।

শুক্রবার এই কথোপকথন দেখিয়ে এনসিবির গোয়েন্দারা প্রশ্ন করেন অনন্যাকে। অনন্যা সেই প্রশ্নের সরাসরি কোনো জবাব দেননি। বরং এনসিবি-র গোয়েন্দাদের তিনি বলেছেন, আরিয়ানের সাথে ‘মজা করছিলাম’।

অনন্যা-আরিয়ানের হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথন হাতে আসার পরই বৃহস্পতিবার এনসিবি বলিউড অভিনেত্রী অনন্যাকে জেরা করার জন্য তাদের দফতরে ডেকে পাঠিয়েছিল। টানা দু’ঘণ্টা জেরার পর শুক্রবারও সকাল ১১টার সময় আবার অনন্যাকে এনসিবি-র দফতরে তলব করা হয়। তার আগে বৃহস্পতিবার মুম্বাইয়ে অনন্যার বাড়িতেও তল্লাশি চালায় এনসিবি। তবে অনন্যার বিরুদ্ধে মাদক সংগ্রহ বা সরবরাহের কোনও প্রামাণ্য নথি গোয়েন্দাদের হাতে আসেনি। এনসিবি জানিয়েছে, অনন্যা কখনো আরিয়ানকে মাদক সরবরাহ করেছিলেন বলে কোনো তথ্য হাতে আসেনি তদন্তকারীদের। যেমন পাওয়া যায়নি অনন্যার মাদক সংগ্রহের প্রমাণও।

বৃহস্পতিবার এনসিবি-র কাছ থেকে তলব পেয়ে বাবার সাথে মুম্বাইয়ে মাদক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরোর অফিসে এসেছিলেন অনন্যা। যদিও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনি একাই ভিতরে ঢোকেন। পরে বাইরে এসে বাবার কাছে কান্নায় ভেঙে পড়তেও দেখা যায় অনন্যাকে। যদিও অভিনেত্রীর ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর মাদক মামলায় আরো জেরা হতে পারে ভেবে ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন অনন্যা। এমনকি বেশ কিছুদিনের জন্য শ্যুটিং বন্ধ রাখতেও নাকি বলেছেন অনন্যা।

সূত্র : আনন্দবাজার



আরো সংবাদ