০৩ আগস্ট ২০২১
`

‘পার্লামেন্টে মিথ্যে শপথবাক্য পাঠ করেছিলেন নুসরাত?’

নুসরাত জাহান - ছবি : সংগৃহীত

সোশ্যাল মিডিয়ায় আবারো নুসরাত জাহান এবং অমিত মালব্য সংঘাত! এবার ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূল সাংসদ-অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত জীবন, বৈবাহিক সম্পর্ক নিয়ে কটাক্ষ করলেন বিজেপি আইটি সেলের মুখপাত্র।

বুধবার এক বিবৃতি জারি করে নুসরাত জানিয়েছিলেন, ‘নিখিল জৈনের সাথে তার আইনত কোনো বৈবাহিক সম্পর্কই নেই। তারা এযাবৎকাল সহবাস করেছেন।’ আর সেই প্রেক্ষিতেই অমিত মালব্য আক্রমণ করলেন সাংসদ-নায়িকাকে। পার্লামেন্টে নুসরাতের শপথবাক্য পাঠ করার সেই পুরনো ভিডিও শেয়ার করে মালব্যর মন্তব্য, ‘তাহলে কি নুসরাত সেদিন সংসদভবনে দাঁড়িয়ে মিথ্যে কথা বলেছিলেন যে তিনি বিবাহিত?’

শপথ বাক্য পাঠের সময় নুসরাত যেভাবে তার পুরো নাম উচ্চারণ করেছিলেন স্বামীর পদবীসহ, টুইটে অমিত মালব্য সেই বিষয়টিকেই হাতিয়ার করে তুলেছেন। তার মন্তব্য, ‘তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান রুহি জৈন ব্যক্তিগত জীবনে কাকে বিয়ে করেছেন, কার সাথে সহবাস করেছেন, সেটা আলোচ্য বিষয় নয়। কিন্তু উনি তো একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। তদুপরি পার্লামেন্টের রেকর্ডও বলছে যে তিনি নিখিল জৈনের সাথে বিবাহিত। তাহলে কি তিনি সেদিন সংসদেও মিথ্যে কথা বলেছিলেন?’- প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন বিজেপি আইটি সেলের মুখপাত্র মালব্য।

প্রসঙ্গত, লোকসভার ওয়েবসাইটে লেখা তৃণমূল সাংসদ নুসরাত জাহান বিবাহিত। সেখানেই স্বামীর নামের জায়গায় জ্বলজ্বল করছে নিখিল জৈনের নাম। কিন্তু এদিকে সাংসদ-নায়িকা বুধবার এক বিবৃতি জারি করে তাদের তুরস্কের বৈবাহিক অনুষ্ঠানের প্রসঙ্গ টেনে এনে জানান, ‘তুরস্কের বিবাহ আইন অনুযায়ী বিয়েটা অবৈধ। কারণ, হিন্দু-মুসলিম বিবাহের ক্ষেত্রে বিশেষ বৈবাহিক আইন অনুসারে রেজিস্ট্রেশনও হয়নি আমাদের।’ কিন্তু এদিকে লোকসভার ওয়েবাসাইটের নথি তথ্যের সাথে সাংসদের মুখের কথার কোনো মিলই নেই!

অতঃপর প্রশ্ন উঠছে, নুসরত জাহান যদি আইনত বিবাহিত না-ই হয়ে থাকেন, তাহলে লোকসভার ওয়েবসাইটে কেন বিবাহিত লেখা? উপরন্তু রাজনৈতিক মহলের অন্দরে এও প্রশ্ন তোলা হয়েছে যে, তুরস্ক থেকে বিয়ে করে ফিরে এসে নায়িকা যখন পার্লামেন্টে শপথ নিলেন, তখন তাকে হিন্দু রীতি অনুযায়ী নবপরিণীতা হিসেবে শাঁখা-পলা, সিঁদুর পরে দেখা গিয়েছিল এবং শপথবাক্য পাঠের সময় তিনি নিজের পুরো নাম ‘নুসরাত জাহান রুহি জৈন’ বলে উল্লেখ করেছিলেন। তিনি যদি বিবাহিত না হয়ে থাকেন, তাহলে কি সেদিন মিথ্যে বলেছিলেন? কিংবা লোকসভার ওয়েবসাইটে ভুল লেখা? প্রশ্ন তুলে জোর শোরগোল শুরু হয়েছে রাজনৈতিকমহলের অন্দরে। সেই প্রেক্ষিতেই এবার নুসরাতের শপথবাক্য পাঠের ভিডিও শেয়ার করে অমিত মালব্য আক্রমণ করলেন প্রতিপক্ষ শিবিরের সাংসদ-নায়িকাকে।

সূত্র : ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস



আরো সংবাদ