২৪ জানুয়ারি ২০২১
`

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার নিয়ে পরিচালকের ক্ষোভ

মাসুদ পথিক - ছবি : সংগৃহীত

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৯ ৮টি ক্যাটাগরিতে ১০টি পুরস্কার পেয়েছে মাসুদ পথিক পরিচালিত ‘মায়া দ্য লস্ট মাদার’ ছবিটি। পরিচালক নিজে শ্রেষ্ঠ কাহিনিকার হিসেবে পুরস্কার পেয়েছেন। কিন্তু ছবিটি শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র ও শ্রেষ্ঠ পরিচালক ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পায়নি। তাই তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ‘যে ছবি ১০টা পুরস্কার পায়, সেটা সেরা হয় না কেন?’

ফোনালাপে মাসুদ পথিক বলেন, ‘আমাদের ছবিটি ১৭টি আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অংশ নিয়েছে। অনেকগুলো পুরস্কার পেয়েছে। সবচেয়ে বড় কথা এটি একটি পরিচ্ছন্ন ছবি। বাংলাদেশে বীরঙ্গনাদের নিয়ে বানানো প্রথম ছবি। যেখানে দেখিয়েছি সবাই প্রশংসা করেছে। তাহলে সেরা চলচ্চিত্রের পুরস্কার না পাওয়া দুঃখজনক।’

তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘যে ছবি ১০টা পুরস্কার পায়, সেটা সেরা হয় না কেন? পৃথিবী জুড়ে যে ছবি সর্বাধিক পুরস্কার পায় সাধারণত সে ছবি সেরা ছবি ও সেরা পরিচালকের পুরস্কার পায়।’

এ অপ্রাপ্তিতে কারও প্রতি কোন প্রকার অভিযোগ নেই মাসুদ পথিকের। জুরি বোর্ড কিংবা মন্ত্রণালয়ের কারও প্রতি কোন ক্ষোভও নেই তার।

তবে তার নিজের ‘সেরা চিত্রনাট্যকার’-এর পুরস্কার গ্রহণ না করার চিন্তাভাবনা করছেন বলে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। এ নিয়ে বলেন, ‘আসলে বিষয়টি এখনও ভাবনার পর্যায়ে রয়েছে। চূড়ান্ত না।’

তৌকির আহমেদ পরিচালিত ‘ফাগুন হাওয়ায়’ এবং তানিম রহমান অংশু পরিচালিত ‘ন’ ডরাই’ শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্রের পুরস্কার পাচ্ছে যৌথভাবে। ‘ন’ ডরাই’-এর জন্য শ্রেষ্ঠ পরিচালক হচ্ছেন তানিম রহমান অংশু।

মাসুদ পথিক পরিচালিত প্রথম ছবি `নেকাব্বরের মহাপ্রয়াণ' ২০১৪ সালে `সেরা চলচ্চিত্র' সহ ছয়টি বিভাগে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পায়। তার আগামী ২৮ জানুয়ারি থেকে ‘দ্য ওল্ড ইজ অ্যালোন’ ছবিটি বানানোর কথা রয়েছে। এটি নির্মিত হবে একজন ফরাসী কবির কবিতা অবলম্বনে।



আরো সংবাদ