২৭ নভেম্বর ২০২০

নিখোঁজের ৫ দিন পর লেকের পানিতে পাওয়া গেল অভিনেত্রীর লাশ

নায়া রিভেরা - ছবি : সংগৃহীত

নিখোঁজ হওয়ার প্রায় পাঁচ দিন পর লেকের পানিতেই পাওয়া গেল মার্কিন অভিনেত্রী নায়া রিভেরার লাশ। ভেন্তুরা কাউন্টি থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী নায়া রিভেরার লাশ উদ্ধার করা হয় ক্যালিফর্নিয়ার লেক পিরু থেকে। কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত এই দেহ নিখোঁজ অভিনেত্রী নায়ার রিভেরা ছাড়া আর কারো নয়।

ভেন্তুরা কাউন্টি শেরিফ বিল আয়ুব সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, চিকিৎসক সরকারিভাবে লাশ চিহ্নিত করবেন এবং তারপরেই হবে ময়নাতদন্ত।

লাশ খুঁজে পাওয়ার পরই নায়া রিভেরার পরিবারকে খবর পাঠানো হয়েছে। ভেন্তুরা কাউন্টি শেরিফ অবশ্য জানিয়েছেন, এই মৃত্যুর পিছনে তারা কোনো সন্দেহজনক কিছু পাননি।

৩৩ বছর বয়সী অভিনেত্রীর লাশ খুঁজে পাওয়া যায় লেক পিরুর উত্তরপূর্ব কোণে।

চার বছরের ছোট ছেলে জোসে-কে নিয়ে বোটিং ও সুইমিং করতে গিয়েছিলেন হলিউড অভিনেত্রী নায়া রিভেরা। সেখান থেকেই আচমকা গায়েব হয়ে যান অভিনেত্রী।

‘গ্লি’ ছবিতে অভিনয়ের জন্যই সবচেয়ে বেশি দর্শকমহলে সমাদৃত হয়েছিলেন নায়া। জানা গেছে, বুধবার নায়া রিভেরা ও তার চার বছরের ছেলে ক্যালিফোর্নিয়ার ভেনচুরা কান্ট্রির লস প্যাডরেস জাতীয় উদ্যানের লেক পুরুতে বোটিং করতে গিয়েছিলেন। দুপুর একটা নাগাদ একটি বোট ভাড়া করেছিলেন তারা। প্রায় তিন ঘণ্টা পরও সেই বোট ফিরে না আসায় সন্দেহ প্রকাশ করেন কর্তৃপক্ষ। তার পরে ভাড়া নেয়া বোট ফিরে এলেও নায়িকার বোট ফেরেনি। তার পরেই খোঁজ খবর শুরু হয়।

জানা গিয়েছিল, বোটে ছেলেকে বসিয়ে সাঁতার কাটতে পানিতে নেমেছিলেন নায়িকা। কিন্তু সেখান থেকেই তার কিছু হয়ে গিয়েছে কিনা তা এখনো নিশ্চিতভাবে জানাতে পারেনি পুলিশ। হেলিকপ্টার ও ড্রোনের সাহায্যে তার লাশ খুঁজে বের করার চেষ্টা চালানো হয়েছে গত পাঁচ দিন ধরে। তবে পুলিশের অনুমান ছিল, লেকের পানিতে ডুবে যাওয়ার আগে হয়তো কোনো চোট খেয়েছিলেন তিনি। ফলে পানিতে পড়ে গিয়ে নিজেকে আর সামলাতে পারেননি। পানিতে ডুবেই সম্ভবত মৃত্যু হয়েছে তার।

তার ছেলেকে একটি বোটের উপর ঘুমন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। তার পরনে একটি লাইফ জ্যাকেট ছিল এবং আরেকটি লাইফ জ্যাকেট বোটে ছিল।

৭ জুলাই শেষ ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছিলেন নায়া রিভেরা। বাচ্চাকে জড়িয়ে রাখা সেই ছবির ক্যাপশনে তিনি লিখেছিলেন, ‘শুধুই আমরা দুজন’।

২০১৪ সালে অ্যাট দ্য ডেভিলস ডোর ছবিতে হলিউড অভিষেক করেছিলেন নায়া রিভেরা। এর পর ২০১৫ ও ১৬ সালে ডিভিয়াস মেইডস টেলিভিশন সিরিজে কাজ করেছেন তিনি। আমেরিকাতেই জন্ম নায়ার। অভিনয়ের পাশাপাশি, মডেলিং, গান ও লেখালিখিও করেন তিনি।

সূত্র : ডেইলি মেইল, সিএনএন


আরো সংবাদ