০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল কম

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যান চলাচল কম - ছবি : সংগৃহীত

অন্য দিনের তুলনায় শনিবার যান চলাচল কমে গেছে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে। ভোর থেকে বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসহ বিভিন্ন যান চলাচল খুব বেশি দেখা যায়নি। দূরপাল্লা ও আঞ্চলিক রুটে গণপরিবহন কম চলার কারণে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদের।

মহাসড়কের মিরসরাই অংশের ৩০ কিলোমিটার এলাকার বিভিন্ন স্ট্যান্ডে গাড়ির জন্য যাত্রীদেরকে অপেক্ষা করতে দেখা গেছে। মাঝে মধ্যে দু’একটি লোকাল ও দূর পাল্লার বাস চলাচল করলেও যা প্রয়োজনের তুলানায় একেবারে কম।

এদিকে শনিবার সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে মিরসরাইয়ের ৩০ কিলোমিটারে মোটরসাইকেলের বহর নিয়ে মহড়া দিয়েছে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আশরাফুল কামাল মিটুর নেতৃত্বে বড়দারোগাহাট থেকে ধুমঘাট ব্রিজ পর্যন্ত লাঠি হাতে নিয়ে মহড়া দেয়া হয়।

শনিবার সকাল থেকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দেখা গেছে, অন্য দিনের তুলনায় বাস, ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, লরি, পিকআপসহ সব ধরনের যান অনেক কম চলাচল করছে।

বারইয়ারহাট-মাদারবাড়ি রুটে চলাচল করা চয়েস, উত্তরা বাস, ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে চলাচল করা বিভিন্ন চেয়ারকোচ ও আন্তঃজেলার বিভিন্ন বাসও খুব বেশি চোখে পড়েনি।

মহাসড়কের বারইয়ারহাট, মস্তাননগর বিশ্বরোড, ঠাকুরদীঘি, মিঠাছড়া, মিরসরাই সদর, বড়তাকিয়া, হাদিফকিরহাট, নিজামপুর কলেজ, বড়দারোগাহাট সহ সব স্ট্যান্ডে কর্মস্থলমুখী মানুষের ভিড় লক্ষ্য করা গেছে।

বড়তাকিয়া স্ট্যান্ডে বাসের জন্য অপেক্ষা করা মো: আইনুল কবির বলেন, প্রতিদিন সকালে আমি অফিসে যাই। স্ট্যান্ডে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করা লাগে না। আজ প্রায় ১ ঘণ্টা দাঁড়িয়েও গাড়ি পাচ্ছি না। তিনি আরো বলেন, ধারণা করছি ঢাকায় বিএনপির মহাসমাবেশের কারণে হয়তো গাড়ি কম চলাচল করছে।

লেগুনা চালক নুর নবী বলেন, আজ রাস্তায় অন্যদিনের তুলনায় গাড়ি চলাচল কম রয়েছে। তবে কিজন্য কমে গেছে তা বলতে পারছি না।

মিরসরাই উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আশরাফুল কামাল মিটু বলেন, বিএনপি-জামায়াত যেন কোনো ধরনের নাশকতা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড করতে না পারে সেজন্য আমরা সজাগ রয়েছি। কর্মসূচির নামে কোনো নৈরাজ্য ছাত্রলীগ-যুবলীগ মেনে নেবে না। আমাদের প্রিয় অভিবাবক ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের নির্দেশে সকল ষড়যন্ত্র প্রতিহত করতে নেতা-কর্মীরা সব সময় মাঠে অবস্থান করবে।

সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন চট্টগ্রাম আঞ্চলিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক অলি আহমদ বলেন, আমরা সাংগঠনিকভাবে গাড়ি চলাচল বন্ধ রাখতে কোনো সীদ্ধান্ত গ্রহণ করিনি। শনিবার বন্ধের দিন এজন্য যান চলাচল কম রয়েছে। এছাড়া অনেক সময় গাড়ি রিজার্ভ হয়ে যায়। হয়তো ট্রাক-কাভার্ডভ্যান ঢাকায় বিএনপির সমাবেশের কারণে আজ ভাড়া ধরেনি।

জোরারগঞ্জ হাইওয়ে থানার ইনচার্জ মোহাম্মদ আলমগীর বলেন, প্রতিদিনের মতো মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে আমাদের টিম দায়িত্ব পালন করছে। তবে কোনো ধরনের চেকপোস্ট স্থাপন করা হয়নি। যান চলাচল অন্যদিনের তুলনায় কিছুটা কম রয়েছে।


আরো সংবাদ


premium cement