২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

শাহপরীর দ্বীপ সড়ক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

শাহপরীর দ্বীপ সড়ক উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী - ছবি : নয়া দিগন্ত

কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভা থেকে সাবরাং ইউনিয়নের হারিয়াখালী হয়ে শাহপরীর দ্বীপ জেটি পর্যন্ত প্রায় ১৪ কিলোমিটার সড়ক। এর মধ্যে সোয়া পাঁচ কিলোমিটার ভাঙা সড়ক নতুন করে নির্মাণ করা হয়েছে। বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সড়কের উদ্বোধন করবেন।

বাংলাদেশের মূল ভূখণ্ডের সবচেয়ে দক্ষিণের গ্রাম শাহপরীর দ্বীপে, যেখানে বসবাস করেন প্রায় ৪০ হাজার মানুষ। ১০ বছর আগে শাহপরীর দ্বীপে যাওয়ার সড়কটি জলোচ্ছ্বাসে ভেঙে গিয়ে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। এতে স্থানীয় বাসিন্দাদের দুর্ভোগের পাশাপাশি প্রাণহানির ঘটনাও ঘটে।

সড়ক বিভাগ কক্সবাজারের নির্বাহী প্রকৌশলী ও প্রকল্প পরিচালক মো: শাহে আরেফীন বলেন, ‘টেকনাফ- শাহপরীর দ্বীপ’ সড়কটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৫৯ কোটি টাকা। ৫.১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের শাহপরীর দ্বীপ সড়কটির কাজ শেষ হওয়ায় ইতোমধ্যে যান চলাচলও শুরু হয়েছে।

শাহে আরেফীন বলেন, আগে সড়কটির প্রস্থ ছিল ৩.৭০ মিটার। এখন প্রস্থ আরো ১.৮০ মিটার বাড়িয়ে ৫.৫০ মিটারে উন্নীত করা হয়েছে। দুই পাশে পানি প্রবাহের সুবিধার্থে সড়কের ওপর একটি সেতু ও ১২টি কালভার্ট বসানো হয়েছে।

শাহপরীর দ্বীপের ৮ নম্বর ওর্য়াডের ইউপি সদস্য রেজাউল করিম জানান, সড়কটি ভেঙে গিয়ে একাধিক স্থানে পুরোপুরি বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ে। এতে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার ভাঙা অংশ হেঁটে অতিক্রম করতে হতো স্থানীয় বাসিন্দাদের। বর্ষাকালে কাদার কারণে সড়কে হাঁটাও যেত না। দুই পাশে জমে থাকা পানির ওপর দিয়ে নৌকায় চলাচল করতেন এলাকার মানুষ। সড়কটি পুননির্মাণের দাবিতে তাই এলাকাবাসী আন্দোলন-সংগ্রামের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপিও দিয়েছেন।


আরো সংবাদ


premium cement