০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ১৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

নোয়াখালীতে ছাত্রলীগের নেতা ইউনিয়ন ছাত্রদলের যুগ্ম-আহ্বায়ক

দেলোয়ার হোসেন রাহাত। - ছবি : নয়া দিগন্ত

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চরপার্বতী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেন রাহাতকে (২৩) সদ্য ঘোষিত চরপাবর্তী ইউনিয়ন ছাত্রদলের সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক করা হয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল সৃষ্টি হয়েছে।

গতকাল সোমবার (৫ ডিসেম্বর) উপজেলা ছাত্রদল কমিটি প্রকাশ করে। ওই কমিটির একজন আহ্বায়ক, চারজন যুগ্ম-আহ্বায়ক, একজন সদস্য সচিব এবং বাকি সবাই সদস্য। ঘোষিত ওই কমিটির ১ নম্বর যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে দেলোয়ার হোসেন রাহাদের নাম রয়েছে।

জানা গেছে, ২০১৭ সালে চরপাবর্তী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের ২১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি অনুমোদন করা হয়। ঘোষিত ওই কমিটির সভাপতি করা হয় দেলোয়ার হোসেন রাহাদকে, সাধারণ সম্পাদক করা হয় খায়রুল ইসলাম পিয়াসকে। দলীয় প্যাডে স্বাক্ষর দিয়ে এ কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন তৎকালীন চরপাবর্তী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মোতাহের হোসেন বাদল ও সাধারণ সম্পাদক আরাফাত হোসেন পিয়াস।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে দেলোয়ার হোসেন রাহাদ বলেন, `২০১৮ সালে এসএসসি পাস করে সরকারি মুজিব কলেজে ভর্তি হই। তখন আমাদের এলাকার আওয়ামী লীগের নেতারা আমাকে ছাত্রলীগ করতে বাধ্য করে। আমাকে বলা হয় কলেজে পড়ালেখা করতে হলে এলাকায় ছাত্রলীগ করতে হবে। একপর্যায়ে আমাকে চরপাবর্তী ৫ নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি করা হয়। এজন্য আমি চট্রগ্রামে আমার এক আত্মীয়ের বাসায় থাকতাম বেশি।`

রাহাদ আরো বলেন, `আমি মনে প্রাণে ছাত্রদল করি। এখনো আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে আমি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে ছাত্রদলের কমিটিতে এসেছি।`

নোয়াখালী জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আজগর উদ্দিন দুখু বলেন, ছাত্রদল করার যে কারো অধিকার আছে। তিনি হয়তো এক সময় ছাত্রলীগ করেছেন। এরপর ছাত্রদলের সাথে হেঁটে ছাত্রদলের আদর্শ, উদ্দেশ তার কাছে ভালো লাগায় ছাত্রদলে এসেছে। তিনি যেহেতু মনে প্রাণে ছাত্রদল করেন, পদ তিনি পেতেই পারে স্বাভাবিক।


আরো সংবাদ


premium cement