০৯ আগস্ট ২০২২
`

নোয়াখালীতে বিআরটিসি বাস চালুর দাবিতে বিক্ষোভ

নোয়াখালীতে বিআরটিসি বাস চালুর দাবিতে বিক্ষোভ - ছবি: নয়া দিগন্ত

নোয়াখালীর সোনাপুর-চেয়ারম্যান ঘাট রুটে বিআরটিসি দ্বিতল বাস চালুর এক দিন পর বন্ধ করে দেয়ার প্রতিবাদে ও ফের চালুর দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে এলাকাবাসী।

রোববার উপজেলার চরবাটা খাসেরহাট রাস্তায় এ কর্মসূচি পালিত হয়।

জানা গেছে, দীর্ঘ দিন যাবত সোনাপুর হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাট পর্যন্ত বিআরটিসি বাস সার্ভিসের দাবি করে আসছিল এলাকাবাসী। তাদের দাবির মুখে প্রশাসন ওই রুটে বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নেয়। গত ২৮ জুন আনুষ্ঠানিকভাবে বিআরটিসি বাস চালু উদ্বোধন করেন নোয়াখালী জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহাবুবুর রহমান। কিন্তু পরের দিন বাস চলাচল বন্ধ করে দেয় বাসচালক সমিতি। ওই বন্ধকৃত বাসগুলো ফের চালু করার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে সুবর্ণচর উপজেলা নাগরিক কমিটিনামক একটি অরাজনৈতিক সংগঠন।

এ সময় বাবু লিটন চন্দ্র দাসের সঞ্চালনায় ও সংগঠনের আহ্বায়ক আতিক উল্যাহ সুজনের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের সাবেক উপ-পরিচালক বাহার উদ্দিন, সুবর্ণচর উপজেলার সমাজসেবক ছায়েদুল হক ভূঁইয়া।

এছাড়া আরো বক্তব্য রাখেন আবদুল বারী বাবলু, মো: ইমাম উদ্দিন সুমন, মো: হানিফ মাহমুদ, কাজল কালো, মো: জামাল উদ্দিন, ইব্রাহিম খলিল শিমুল প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, সোনাপুর থেকে চেয়ারম্যান ঘাট পর্যন্ত প্রায় ৬০ কিলোমিটার সড়ক। মানসম্মত কোনো পরিবহণ না থাকায় সরকারিভাবে বিআরটিসি বাস দেয়। কিন্তু উদ্বোধনের মাত্র এক দিন পর ব্যক্তি মালিকানাধীন সোনাপুর বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির বাধার মুখে বন্ধ হয়ে যায় এ বাস সার্ভিস।

বক্তারা অভিযোগ করে বলেন, সোনাপুর বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির লোকজন যাত্রীদের থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় এবং চাঁদাবাজি করে থাকে। তাদের এই চাঁদাবাজি অব্যাহত রাখার জন্যই তারা বিআরটিসির বাস বন্ধ করে দিয়েছে। বক্তারা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বিআরটিসি বাস সার্ভিস ফের চালু না করলে অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য সড়ক অবরোধ, বিক্ষোভ, প্রতিবাদ সমাবেশসহ কঠিন কর্মসূচি দেবেন বলে জানান।


আরো সংবাদ


premium cement