১৯ জানুয়ারি ২০২২
`

লক্ষ্মীপুরে আ’লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ছাত্রলীগ নেতা নিহত


লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ইছাপুরে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষে ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি নিহত হয়েছেন।

রোববার বিকেলে উপজেলার ইছাপুর ইউপির নয়নপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ও নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত ছাত্রলীগ নেতার নাম সাজ্জাদুর রহমান ওরফে সজীব (২৫)। তিনি ইছাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি। সাজ্জাদুর ওই ইউনিয়নের নয়নপুর গ্রামের আবদুল সাত্তারের ছেলে।

রামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আনোয়ার হোসেন ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদুর রহমানের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, লাঠির আঘাতে সাজ্জাদুরের মাথায় জখম হয়। গুরুতর আহত অবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে মারা যান তিনি।

ইছাপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নতুন কমিটির সভাপতি ছিলেন সাজ্জাদুর। গত ১৫ নভেম্বর সাবেক কমিটি বিলুপ্তির পর তাকে সভাপতি করা হয়।

স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, ইছাপুর ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন শাহানাজ আক্তার। দলের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে স্বতন্ত্রভাবে নির্বাচন করছেন আমির হোসেন খান।

রোববার বিকেলে নয়নপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে প্রথমে বাক-বিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে দুই পক্ষের লোকজনের মধ্যে ধাওয়া-ধাওয়ী হয়। এ সময় লাঠির আঘাতে মারাত্মক আহত হন ছাত্রলীগ নেতা সাজ্জাদুর।

চলতি ইউপি নির্বাচনে তিনি নৌকার প্রার্থীর সমর্থক ছিলেন।


আরো সংবাদ


premium cement