০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১৬ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৫ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

নোয়াখালীতে পুলিশ-মুসুল্লি সংঘর্ষ : ওসিসহ আহত ১৭

গুলি-কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ

নোয়াখালীর চৌমুহনীতে শুক্রবার জুমার নামাজের পর মুসুল্লিদের সাথে পুলিশর ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় কয়েকটি পূজামণ্ডপে ভাঙচুর করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পবিত্র কোরআন শরীফ আবমাননাকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষ ও ভাঙচুর হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। সংঘর্ষে বেগমগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান শিকদার ও দুই পুলিশ সদস্যসহ কমপক্ষে ১৭ জন আহত হন।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, জুমার নামাজ শেষে বিভিন্ন মসজিদ থেকে মুসুল্লিরা মিছিল বের হয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় চৌমুহনী কলেজ রোডে পাঁচ-ছয়জন মুসলিম তরুণের ওপর হামলা হয় বলে মুসুল্লিদের মাঝে খবর ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেন সবাই। একপর্যায়ে তারা চৌমুহনী কলেজ রোডে বিজয়া, রাধা মাধব জিউর মন্দির, চৌমুহনী রামঠাকুরের আশ্রমসহ কয়েকটি পূজামণ্ডপে ভাঙচুর করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ জানায়, চৌমুহনী রেল গেটে আওয়ামী লীগ-যুবলীগ একত্রিত হয়ে তাদের ধাওয়া করলে উভয়ের মাঝে আবারো সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় চৌমুহনী বাজার রনক্ষেত্রে পরিণত হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ, র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যরা ১০ রাউন্ড গুলি ও ৬ রাউন্ড কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে।

সংঘর্ষে আহত ওসিসহ অন্যদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের পরিচয় তাৎক্ষণিক নিশ্চিত হওয়া যায়নি। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত চৌমুহনী শহরে যানবাহন চলাচল বন্ধ।



আরো সংবাদ