২৮ জুলাই ২০২১
`

স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সম্মানে বিশ্ব রক্তদাতা দিবস

ডা: নাসরিন আক্তার - ছবি সংগৃহীত

রক্তদান মানবিকতার এক অনন্য নিদর্শন। রক্তদানের মাধ্যমে নানা সময়ে মানুষ মানুষের জীবন বাঁচাতে এগিয়ে আসে। রক্তদাতাদের অবদান নিঃসন্দেহে কৃতজ্ঞতা পাওয়ার যোগ্য। আর এই রক্তদাতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতাবোধ থেকেই প্রতি বছর ১৪ জুন বিশ্ব জুড়ে ‘বিশ্ব রক্তদাতা দিবস’ পালিত হয়। এই দিবস পালনের উদ্দেশ্য হলো নিরাপদ রক্তের প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে এবং জাতীয় স্বাস্থ্য ব্যবস্থায় স্বেচ্ছাসেবী, বিনামূল্যে রক্তদাতাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান সম্পর্কে বিশ্বব্যাপী সচেতনতা বৃদ্ধি করা।

প্রতিটি দেশেই নিরাপদ রক্তের প্রাপ্যতা নিশ্চিত করার জন্য দেশে স্বেচ্ছাসেবক এবং বিনামূল্যে রক্তদাতাদের নিঃস্বার্থ উপস্থিতি অন্ত্যন্ত জরুরি। ‘বিশ্ব রক্তদাতা দিবস’ প্রতি বছরই একটি প্রতিপাদ্য বিষয় বিশ্বের কাছে প্রচার করে।

গত বছর, ২০২০-এ দিবসের স্লোগান ছিল- ‘সেফ ব্লাড সেভস লাইফ’। এ বছরের স্লোগানটি হলো-‘গিভ ব্লাড অ্যান্ড কিপ দ্য ওয়ার্ল্ড বিটিং’, এর অর্থ হচ্ছে, ‘রক্ত দিন, বিশ্বকে সচল রাখুন’। প্রয়োজনে রক্তদান করে পৃথিবীকে প্রাণবন্ত রাখার উদ্দেশ্যকে মাথায় রেখেই এবারে বিশ্বব্যাপী এ দিবস পালিত হচ্ছে।

‘বিশ্ব রক্তদাতা দিবস’ ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশন (ডাব্লিউএইচও)-এর একটি গ্লোবাল পাবলিক হেলথ ক্যাম্পেইন এর অংশ। প্রখ্যাত জীববিজ্ঞানী ও চিকিৎসক কার্ল ল্যান্ডস্টেইনার-এর জন্মদিন ১৪ জুন-এ প্রতি বছর এই দিবস পালিত হয়। কার্ল ল্যান্ডস্টেইনার ১৯০১ সালে এবিও ব্লাড গ্রুপ আবিষ্কার করেন। এই আবিষ্কারের ফলেই বর্তমানে সফল রক্ত পরিসরণ সম্ভব হচ্ছে।

‘বিশ্ব রক্তদাতা দিবস’-এর এবারের নির্দিষ্টকৃত উদ্দেশ্যসমূহের মধ্যে-স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ, নিরাপদ রক্তদান বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি, জনগণের সংহতি ও সামাজিক সম্প্রীতি বাড়াতে রক্তদানের মূল্যবোধ প্রচার করা, যুবসমাজকে এই মানবিক কাজে অংশগ্রহণে উৎসাহিত করা উল্লেখযোগ্য। স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সম্মান প্রদর্শনের জন্যই বিশ্ব রক্তদাতা দিবসটি প্রতিবছর পালিত হয়ে আসছে।

এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রামের ব্লাড ব্যাংক স্পেশালিষ্ট (ট্রান্সফিউশন মেডিসিন), ডা: নাসরিন আক্তার এ বিষয়ে বলেন, ‘রক্তদান বিষয়টি অতি প্রয়োজনীয়। এর ফলে অসংখ্য মানুষের জীবন রক্ষা হয়। সবাইকে স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসতে হবে। কোনো রকম প্রতিদানের প্রত্যাশা না করে কারো জীবন বাঁচানোর উদ্দেশ্যে যখন কেউ রক্তদান করে, তখন সেটা স্বেচ্ছায় রক্তদান হিসেবে বিবেচিত হয়। এমন রক্তদাতাদের সম্মানিত করার জন্যই প্রতি বছর ১৪ জুন ‘বিশ্ব রক্তদাতা দিবস’ পালিত হয়ে আসছে। এই অতিমারী কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতেও এভারকেয়ার হসপিটাল চট্টগ্রাম রক্ত পরিসরণ সেবা চালু রেখেছে এবং নির্বিঘ্নে রোগীদের রক্তদান করে আসছে। আপনারাও স্বেচ্ছায় রক্তদানে এগিয়ে আসুন। রক্ত দিন, জীবন বাঁচান।’

প্রেস বিজ্ঞপ্তি



আরো সংবাদ