২২ জুন ২০২১
`

প্রশাসনকে এভাবে বিক্রি হতে আর দেখিনি : কাদের মির্জা

প্রশাসন এভাবে বিক্রি হতে আর দেখিনি : কাদের মির্জা - ফাইল ছবি

এবার প্রশাসন বিক্রি হয়ে যাওয়ার অভিযোগ আনলেন নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। শনিবার দুপুর ২টার দিকে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে দেয়া একটি স্টাটাসে এ অভিযোগে তোলেন সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই কাদের মির্জা।

স্টাটাসে তিনি লিখেছেন, আমার ৪৭ বছরের রাজনীতির জীবনে প্রশাসনকে এভাবে বিক্রি হতে আমি আর দেখিনি।

স্টাটাসের বিষয়ে জানতে চাইলে মেয়র আবদুল কাদের মির্জা বলেন, প্রশাসন এভাবে বিক্রি হতে পারে তা আমি আর কখনো দেখি নাই। বিক্রি যদি না হতো তাহলে আমার ওপর একতরফাভাবে তাণ্ডব চালাতো না।

তিনি আরো বলেন, প্রশাসন দেখে দেখে শুধু আমার লোকদের গ্রেফতার করতেছে। আমার লোকদের হয়রানি করতেছে। অথচ আমার ওপর ছায়বার হামলা হলো, আমার সন্তানের মাথা ফাটিয়ে চৌচির করে দিল, প্রশাসন এখনো কাউকে গ্রেফতার করল না।

এ বিষয়ে নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) মো: আলমগীর হোসেন বলেন, এটা কাদের মির্জার একান্ত ব্যক্তিগত মতামত। আমরা বিগত সময়ের মামলাগুলোর তদন্ত করে প্রকৃত দোষীদের আটক করছি। এখানে কারো অনুসারী দেখে আটক করা হচ্ছে না।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা বসুরহাট পৌরসভায় দ্বিতীয় মেয়াদে গত বছরের ডিসেম্বরে নির্বাচনের আগে বিভিন্ন ইস্যুতে কথা বলে আলোচনায় আসেন। স্থানীয় রাজনীতির বিভিন্ন ইস্যুতে দলীয় প্রতিপক্ষের সাথে তার বিরোধের জেরে এক মাসে দু’টি সংঘর্ষে দু’জন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়। আহত হয় অনেকে। এসব ঘটনায় একাধিক মামলা দায়ের করা হয়েছে। ৩১ মার্চ দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে নিজের ফেসবুক আইডি থেকে তিনি দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। তাছাড়া তিনি আর জনপ্রতিনিধি হিসেবে নির্বাচন করবেন না বলেও ঘোষণা দেন। নোয়াখালীতে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে বিভেদ সৃষ্টির পেছনে তার বড় ভাই ওবায়দুল কাদের ও তার স্ত্রী জড়িত বলেও অভিযোগ করে আসছেন তারই ছোট ভাই কাদের মির্জা।



আরো সংবাদ