১৩ মে ২০২১
`

নোয়াখালীতে মাস্ক না নেয়ায় যুবককে মারধর

-

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার মাস্ক না নেয়ায় এক যুবককে মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের চৌধুরী বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের শিকার কাজী নজরুল ইসলাম (৩২) একই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মেস্তরি বাড়ির মাকসুদুর রহমানের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার সকালে মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেকলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম শাহীন চৌধুরী স্থানীয় বাজারে কিছু মাস্ক বিতরণ করেন। তিনি চলে যাওয়ার পর তার চাচাতো ভাই মামুন মাস্ক বিতরণ করেন। এ সময় নজরুল ইসলাম নামে এক যুবক মাস্ক নিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে চেয়ারম্যানের চাচাত ভাইয়ের নেতৃত্বে চৌধুরী বাজারের একটি হোটেলে মারধর করা হয়। বর্তমানে তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ বিষয়ে চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম শাহীন চৌধুরী জানান, আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না। প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে শুনেছি যে মামুন মাস্ক বিতরণকালে নজরুলকে মাস্ক দিতে চাইলে সে অকথ্য ভাষায় গালমন্দ করে। পরে সেখানে উপস্থিত কয়েকজন যুবক তাকে চড় থাপ্পড় দেয়। এ সময় সে হোটেলের নান রুটি বানানোর তাওয়ার রডের ওপর পড়ে গেলে তার শরীর থেকে রক্ত বের হয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনির মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো: রবিউল হক জানান, এ বিষয়ে কেউ এখনো থানায় অভিযোগ করেনি।



আরো সংবাদ