১৩ মে ২০২১
`

কোম্পানীগঞ্জে ফের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি, প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

কোম্পানীগঞ্জে ফের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি, প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা - ফাইল ছবি

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে এবার সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে পাল্টা কর্মসূচির ঘোষণা দিয়েছে বসুরহাট পৌর মেয়র ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীরা। মহাজন দিঘী যুব ও তরুণ সমাজ ব্যানারে কাদের মির্জার অনুসারী দু’টি গ্রুপ স্থানীয় সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে শনিবার রাতে পাল্টা এ কর্মসূচির ঘোষণা দেয়। এতে আইনশৃঙ্খলা অবনতির আশঙ্কায় রোববার বিকেলে স্থানীয় প্রশাসন উভয় পক্ষের কর্মসূচিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।

জানা গেছে, কাদের মির্জার এক অনুসারী স্থানীয় চার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। পাশাপাশি হুমকি ও ফেসবুকে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেয়া হচ্ছে স্থানীয় সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে কোম্পানীগঞ্জ প্রেসক্লাব ও রিপোটার্স ইউনিটি একটি কর্মসূচির ঘোষণা দেয়। এর বিপরীতে পাল্টা কর্মসূচি দিয়েছে কাদের মির্জা অনুসারী মহাজন দিঘী যুব ও তরুণ সমাজ।

পাল্টা-পাল্টি কর্মসূচি ঘিরে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিলে রোববার বিকেলে প্রশাসন সভা-সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

কোম্পানীগঞ্জের সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা দায়ের, হুমকি ও ফেসবুকে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেয়ার প্রতিবাদে আগামীকাল সোমবার সকাল ১০টায় বসুরহাট জিরো পয়েন্টে প্রতিবাদী মিছিল ও সভার ঘোষণা দেয় প্রেসক্লাব কোম্পানীগঞ্জ ও কোম্পানীগঞ্জ রিপোটার্স ইউনিটি। সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে গত শুক্রবার রাতে এ কর্মসূচি দেয়া হয়। সাংবাদিকদের এ কর্মসূচির বিপরীতে শনিবার রাতে আবদুল কাদের মির্জার অনুসারীরা শ্রমিকলীগ নেতা ওয়াসিমের মুক্তি, সাংবাদিক মুজাক্কির ও শ্রমিকলীগ নেতা আলাউদ্দিনের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে একই সময় একই স্থানে মানববন্ধনের ঘোষণা দেয়।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি জানান, দু’পক্ষের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির কারণে আইনশৃঙ্খলার অবনতি হতে পারে। এজন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে উভয় পক্ষকে কর্মসূচি পালনে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে।

অপর দিকে, কয়েকজন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে, যা আদালতে বিচারাধীন। এ ক্ষেত্রে তারা প্রকাশ্যে সভা করতে পারবে না।

উল্লেখ্য উপজেলার বসুরহাট পৌরসভার করালিয়া এলাকায় গত ৫ এপ্রিল সন্ধ্যায় কাদের মির্জা ও উপজেলা আ’লীগ অনুসারীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।এতে উভয় গ্রুপের অন্তত পাঁচজন আহত হন। এ ঘটনায় গত ৭ এপ্রিল কোম্পানীগঞ্জ থানায় পাল্টা-পাল্টি মামলা দায়ের করা হয়। কাদের মির্জার অনুসারী আবুল হাসেম ওই মামলায় চারজন সাংবাদিককেও আসামি করেন। এর আগে গত তিন মাসে কয়েক দফা পৌর মেয়র কাদের মির্জা ও প্রতিপক্ষ উপজেলা আওয়ামী লীগের অনুসারীরা পাল্টা-পাল্টি কর্মসূচি ঘোষণা করলে প্রশাসন ১৪৪ ধারাসহ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। এরপরও বিবাদমান আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের দফায় দফায় সংঘর্ষে দু’জন নিহতসহ অনেকে আহত হয়। এসব ঘটনায় একাধিক মামলা তদন্তাধীন রয়েছে।



আরো সংবাদ


সকল