২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১
`

২৪ বাংলাদেশী জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার

২৪ বাংলাদেশী জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার - ফাইল ছবি

টেকনাফের নাফ নদী থেকে মিয়ানমার বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি) ধরে নিয়ে যাওয়া ২৪ জন বাংলাদেশী জেলেকে ফেরত দিয়েছে মিয়ানমার। মিয়ানমারের বিজিপির দাবি এরা বিভিন্ন সময় অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে অনুপ্রবেশ করেছিল। অবৈধ অনুপ্রবেশের অপরাধে তাদের সাজা দেয়া হয়। সাজার মেয়াদ শেষ হওয়ায় কারাগার থেকে ২৪ জন বাংলাদেশীকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মিয়ানমারের মংডুতে বিজিবি ও বিজিপির মধ্যে পতাকা বৈঠকের পর বিজিবির কাছে তাদের হস্তান্তর করেছে বিজিপি।

টেকনাফ বিজিবি ব্যাটালিয়ন-২-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো: ফয়সল হাসান খান সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, তার নেতৃত্বে ৯ সদস্য বিশিষ্ট বাংলাদেশ প্রতিনিধি মিয়ানমার যায়। এরপর মিয়ানমারের অভ্যন্তরে এক নম্বর এন্ট্রি পয়েন্টের মংডুতে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে মিয়ানমারের সাত সদস্য বিশিষ্ট প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন চার নম্বর বর্ডার গার্ড পুলিশ ব্রাঞ্চের পুলিশ লেফটেন্যান্ট কর্ণেল জো লিং অং।

পতাকা বৈঠকের পর বাংলাদেশী নাগরিক বিভিন্ন সময়ে অবৈধভাবে সীমান্ত অতিক্রম করে মিয়ানমারের অভ্যন্তরে গমনের অপরাধে বিজিপির ধৃত কারাগারে সাজা ভোগকৃত ২৪ জনকে বিজিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়। পরে দুপুর ২টার দিকে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল ২৪ জনকে নিয়ে টেকনাফ জেটিঘাটে ফেরত আসে। কারাভোগ শেষে ফেরত আসা বাংলাদেশী ২৪ জন নাগরিকের মধ্যে টেকনাফের ১২ জন, রাঙামাটির আটজন, বান্দরবানের তিনজন ও রাজশাহীর একজন।

এই ২৪ জনকে পুলিশের সহায়তায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার সমন্বয়ে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে রাখার ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। কোয়ারেন্টিন শেষে পুলিশের মাধ্যমে তাদেরকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানায় বিজিবি।



আরো সংবাদ