২৭ জানুয়ারি ২০২১
`

উঠানে পড়তে থাকা শিশুটির প্রাণ গেলো শিকারীর গুলিতে

-

বাড়ির আঙিনায় বসে বৈদ্যুতিক বাতির আলোয় পাঠ্যবই পড়ছিল শিশু মারুফ। হঠাৎ একটা গুলি এসে নিভিয়ে দিলো শিশুটির জীবন প্রদীপ। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলার চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ইউনিয়নের পশ্চিম নারিশ্চা বটতলি এলাকায়।

নিহত শিশু মারুফুল ইসলাম মারুফ (১৩) স্থানীয় একটি স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র। সে ওই এলাকার মৌলানা মুহাম্মদ ফোরকানের ছেলে।

বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠোনো হয়েছে বলে জানা গেছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আবদুল মোনাফ সিকদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নিহতের বড় ভাই মোঃ মামুন জানান, প্রতিদিনের মতো তার ভাই মারুফ বাড়ির আঙিনায় বৈদ্যুতিক লাইটের নিচে বসে পড়ালেখা করছিল। স্থানীয় ভেট্টু বড়ুয়ার ছেলে জিতং বড়ুয়া নামে এক ব্যক্তি প্রতিরাতে বন্দুক দিয়ে বন্য শূকর শিকার করেন। শিকারের পর তিনি খড়ের ভিতর বন্দুকটি লুকিয়ে রাখেন। ঘটনার দিন শিকারে যাওয়ার আগে তার বন্দুক বের করার সময় অসাবধানতাবশত গুলি বের হয়ে যায়। এতে স্কুলছাত্র মারুফ গুলিবিদ্ধ হয়। তাৎক্ষণিকভাবে পরিবারের লোকজন মারুফকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত জিতং বড়ুয়া পলাতক রয়েছেন।

লোহাগাড়া থানার ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে এসেছে। বৃহস্পতিবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠোনো হয়েছে। এ ব্যাপারে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।



আরো সংবাদ