২৩ অক্টোবর ২০২০

প্রেমিকার নানার বাড়ি থেকে প্রেমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

-

লক্ষ্মীপুরে প্রেমিকা কলেজছাত্রী পলি বেগমের নানার বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় প্রেমিক জাবেদ হোসেনের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর উপজেলার হামছাদী এলাকায় ওই শিক্ষার্থীর নানার বাড়ি থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

জাবেদ হোসেন একই উপজেলার পূর্ব হাসন্দি এলাকার সাইফুল ইসলামের ছেলে।

জাবেদকে মানসিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে দাবি করেন নিহতের পরিবারের সদস্যরা। এ ঘটনা নিয়ে স্থানীয়দের মধ্যে দেখা দিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া।

পুলিশ জানায়, কলেজশিক্ষার্থী পলি বেগমের সাথে জাবেদ হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। দীর্ঘদিন ধরে দুজনের মধ্যে এ সম্পর্ক চলে আসছে। কিন্তু তাদের সম্পর্ক উভয়ের পরিবার মেনে নেয়নি। এ কারণে গোপনে বিয়ে করার জন্য সকালে ওই শিক্ষার্থীর নানার বাড়িতে যান জাবেদ। এ সময় তাকে নানাভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। এর পর দুপক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে কোনো একসময়ে ঘরে ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে জাবেদ আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রচারণা চালায় কলেজছাত্রীর পরিবার।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় নিহত যুবকের লাশ উদ্ধার করে।

এ দিকে স্থানীয়রা জানায়, জাবেদ হোসেনকে ওই ছাত্রীর পরিবারের লোকজন কালিবাজার এলাকা থেকে রাতের কোনো একসময়ে ধরে নিয়ে যায়। এরপর তাকে বেদম মারধর করে। এর জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে দাবি করেন তারা।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ওসি তদন্ত মো: মোসলেহ উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থল থেকে নিহত যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। নিহত জাবেদ একটি বেসরকারি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন। ময়নাতদন্ত রিপোর্টের পর এই বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ