১৩ জুলাই ২০২০

নবীনগরে ব্র্যাকের ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ

নবীনগরে ব্র্যাকের ব্যাতিক্রমী উদ্যোগ -

করোনাভাইরাসের কারণে হিমশিম খাচ্ছেন ক্ষুদ্র আয়ের মানুষ। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরুর পর থেকে ব্র্যাক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর শাখা তাদের কিস্তি আদায় বন্ধ রেখে গ্রাহকদের মাঝে ৩ কোটি ২৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা ঋণ বিতরণ ও গ্রাহকদের সঞ্চয়ের ১৬ লাখ ৯৯ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছেন। এই ব্যাতিক্রমী উদ্যোগে প্রশংসায় ভাসছে ব্র্যাক।

জানা যায়, বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই ব্র্যাক ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর শাখা স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের অফিস খোলা রেখে মাঠকর্মীদের সাথে নিয়ে সচেতনতামূলক কাজ করে যাচ্ছে।

অপর দিকে বেশ কিছু ব্যাতিক্রমী কাজ করে আলোচনায় এসেছে ব্র্যাক মাইক্রোফাইন্যান্স।

গত ১০ মে থেকে ২০ জুন পর্যন্ত সাধারণ জনগোষ্ঠীর আর্থিক সুবিধা বিবেচনা ও অর্থনৈতিক চাকাকে সচল রাখতে কৃষিখাত, মুদি ব্যবসায়ী ও ওষুধ বিক্রেতাসহ বিভিন্ন পেশার ৩২৬ জন গ্রাহকের মাঝে ৩ কোটি ২৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা ঋণ বিতরণসহ গ্রাহকদের মোবাইলে বিকাশ ওয়ালেটের মাধ্যমে ৭৪৯ জন গ্রাহকদের সঞ্চয়ের ১৬ লাখ ৯৯ হাজার টাকা ফেরত দেয়া হয়েছে। ব্র্যাকের কর্মীরা মাঠে গিয়ে কিস্তির টাকা আদায় না করে করোনাভাইরাস রোধে সচেতনামূলক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন। উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে মাইকিং, সামাজিক দূরত বজায় রাখতে দোকানে দোকানে বৃত্ত তৈরি, পোস্টার বিতরণ, সাবান দিয়ে হাত ধোয়া, মাস্ক ব্যবহার করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করা, অপ্রয়োজনে ঘর থেকে না বের হওয়া বিষয়গুলো প্রচার করে যাচ্ছেন।

ব্র্যাকের নবীনগর এলাকা ব্যবস্থাপক মো: রেজওয়ান করিম বলেন, সরকারের সাথে কোভিড-১৯ মোকাবেলায় সহায়তা করার জন্য ব্র্যাককে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে একটি সনদপত্র প্রদান করা হয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি এই সংকটে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর। নবীনগর অঞ্চলের প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে আর্থিক অনুদান প্রদান, সাবান ও পাউডারসহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণ করে যাচ্ছি।

ব্র্যাকের নবীনগর শাখার ব্যাবস্থাপক মো: মফিজ উদ্দিন বলেন, মাঠ পর্যায়ে কিস্তি আদায় না করে মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর পাশে থেকে সহযোগিতার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছি। ১০ মে থেকে ১৮ জুন পর্যন্ত নবীনগর শাখা থেকে ৩ কোটি ২৭ লাখ ৭০ হাজার টাকা ঋণ বিতরণ ও মোবাইলের মাধ্যমে গ্রাহকদের সঞ্চয়ের ১৬ লাখ ৯৯ হাজার টাকা গ্রাহকদের ফেরত দেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের চরম দুর্দিনে ব্র্যাক তাদের কিস্তি আদায় বন্ধ রেখে, গ্রাহকদের মাঝে ঋণ বিতরণ ও মোবাইলের মাধ্যমে সঞ্চয়ের টাকা ফেরত দেয়ায় এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে সুবিধাভোগী গ্রাহরা বলেন, কোন এনজিও ঋণ দিচ্ছে না, কিন্ত ব্র্যাক থেকে ঋণ ও সঞ্চয়ের টাকা ফেরত দিয়ে মহাবিপদের সময় আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে।


আরো সংবাদ

ডা. সাবরিনাকে নিয়েও অনুসন্ধান করবে দুদক মরহুম রাষ্ট্রপতি এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী মঙ্গলবার মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করায় কাকরাইলে লাজ ফার্মাকে ২৯ লাখ জরিমানা সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করোনা সংক্রমণ বাড়ায় শ্রীলঙ্কায় ফের স্কুল বন্ধের নির্দেশ উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য না ফেলতে ডিএসসিসি মেয়রের আহ্বান ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে সেব্রেনিৎসা স্টাইলে গণহত্যার আশঙ্কা! কিশোরগঞ্জে করোনা ও উপসর্গে ২৪ ঘণ্টায় ৪ জনের মৃত্যু আনোয়ারায় হাতকড়াসহ যুবকের লাশ উদ্ধার জামায়াত কর্মী হাবিবুর রহমানের ইন্তেকালে আমিরের শোক রিজেন্ট-জেকেজি কেলেঙ্কারি বিশ্বে বাংলাদেশকে কলঙ্কিত করেছে : মানববন্ধনে বক্তারা

সকল