১৪ জুলাই ২০২০

জিরি মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ্ মুহাম্মদ তৈয়্যবের ইন্তেকাল

সেজদারত অবস্থায় আল্লামা শাহ্ মুহাম্মদ তৈয়্যবের ইন্তেকাল - ছবি : নয়া দিগন্ত

দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম দ্বীনি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আল জামিয়াতুল আরাবিয়াতুল ইসলামীয়া জিরি মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ্ মুহাম্মদ তৈয়্যব (৭৯) ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। সোমবার রাত দেড়টায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন। পবিত্র রমজানের শেষ পর্বে হুজুর মসজিদে এতেকাফ শুরু করলেও তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। সর্বশেষ সন্ধ্যায় পবিত্র ঈদুল ফিতরের চাঁদ দেখার পরে তিনি আরো অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি সেখানে সেজদারত অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

আজ পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজের পরে সকাল সাড়ে ৯টায় মাদরাসা মাঠে মরহুমের নামাজে জানাজা শেষে মাদরাসা কবরস্থানেই দাফন সম্পন্ন হয়। জানাজায় ইমামতি করেন হাটহাজারী মাদরাসার সহকারী পরিচালক সিনিয়র মুহাদ্দিস হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের মহাসচিব আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী। জানাজার পূর্বে মজলিসে সূরার সিদ্ধান্ত মোতাবেক মরহুম হজুরের মেঝ সাহেবজাদা মাওলানা হাফেজ মুহাম্মদ খোবাইবকে মাদরাসার নতুন মুহতামিম হিসাবে নাম ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে হজুর স্ত্রী তিন পুত্র ৫ কন্যা আত্মীয়স্বজন লক্ষ লক্ষ মুরিদ ও মাদরাসা ছাত্র রেখে গেছেন।

আল্লামা শাহ্ মুহাম্মদ তৈয়্যব সাহেবের ইন্তেকালে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা,স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল,ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ. হুইপ পটিয়ার সংসদ সদস্য সামশুল হক চৌধুরী, গভীর শোক প্রকাশ ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।
এ ছাড়াও আলহাজ্ব মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি, আলহাজ্ব মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এমপি, প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপি, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোসলেম উদ্দিন আহমেদ এমপি, হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমীর আল্লামা শাহ আহমদ শফি, চরমোনাই পীর সাহেব ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমীর মুফতি সৈয়দ রেজাউল করীম.আল-জামিয়া আল ইসলামীয়া পটিয়ার মহাপরিচালক মুফতি আবদুল হালিম বোখারী, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুফিজুর রহমানসহ দেশ বরেণ্য আলেম ওলামাগণ গভীর শোক প্রকাশ ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করেছেন।

প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে আগামী সংসদ অধিবেশনে হুজুরের ইন্তেকালে শোক প্রস্তাব আনা হবে বলে টেলিফোনে জানানো হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন, মরহুম হুজুরের মেঝ সাহেবজাদা মাওলানা হাফেজ মুহাম্মদ খোবাইব বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।


আরো সংবাদ