০১ জুন ২০২০

চমেকে করোনার লক্ষণে যুবকের মৃত্যু, ১৩ পরিবার লকডাউন

চমেকে করোনার লক্ষণে যুবকের মৃত্যু, ১৩ পরিবার লকডাউন - ছবি : সংগৃহীত

চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় সর্দিকাশি ও গলা ব্যাথা নিয়ে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক যুবক মৃত্যুবরণ করেছেন। এতে সোমবার বিকেল থেকে সাময়িকভাবে উপজেলার ১৩টি পরিবারকে লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদ ও থানার পুলিশ পরিদর্শক দুলাল মাহমুদ দৈনিক নয়া দিগন্তকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, ৫ এপ্রিল বিকেলে শিলাইগড়ার ওই যুবক সর্দিকাশি ও গলা ব্যাথা নিয়ে চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসেন। সেখানে চিকিৎসক তাকে ব্যবস্থাপত্র দিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেন। রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাকে ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

বিষয়টি আনোয়ারা উপজেলা প্রশাসন জানার পর রাত ৩টার দিকে শিলাইগড়ার মারা যাওয়া যুবকের বাড়িসহ ১৩টি পরিবারকে সাময়িকভাবে লকডাউন করে দেয়। 

উপজেলা নিবার্হী অফিসার শেখ জোবায়ের আহমেদ নয়া দিগন্তকে বলেন, ওই যুবকের করেনায় আক্রান্ত ছিলেন কিনা তা জানার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ফৌজদারহাট বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল ইনফেকশনাস ডিজিসসে(বিআইটিআইডি) পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।  

তিনি বলেন, প্রশাসন অতি মানবিকভাবে ওই ১৩টি পরিবারের সদস্যদেরকে আপাতত ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করা করেছে। প্রয়োজনে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সাবির্ক সহযোগিতা করা হবে।


আরো সংবাদ