২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীকে নির্যাতন : বিক্ষোভের পর ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা

-

সীতাকুণ্ডর কুমিরাস্থ আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিবির সন্দেহে এক ছাত্রের উপর অমানষিক নির্যাতনের প্রতিবাদ ও নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছে সাধারণ ছাত্ররা। আজ বুধবার দুপুরে সীতাকুণ্ডের কুমিরাস্থ আই.আই.ইউসি ক্যাম্পাসে এ বিক্ষোভ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত সোমবার রাতে মোহাম্মদ আদনান নামে এক ছাত্রকে শিবিরকর্মী সন্দেহে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ছাত্রলীগের কর্মীরা। তিনি হযরত উসমান হলের ৪১৩ নং রুমে থাকতেন। তিনি কুরানিক সাইন্স এন্ড ইসলামিক ষ্টাডিজ বিভাগের ২য় সেমিষ্টারের ছাত্র।

খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আহত আদনানকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। গতকাল সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের মাঝে এ ঘটনাটি জানাজানি হয়ে পড়লে সাধারণ ছাত্ররা দুপুরে ছাত্র নির্যাতেনের প্রতিবাদ ও নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবীতে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করে। এসময় ছাত্রলীগের একটি অংশ শিক্ষার্থীদের উপর চড়াও হলে ক্যাম্পাসে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। এসময় ঘটনাস্থলে সীতাকুন্ড মডেল থানার এসআই মামুনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল অবস্থান নিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, এ ধরণের ঘটনা যাতে পুনারাবৃত্তি না হয় সেজন্য ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর নিজাম উদ্দিন বলেন, সাধারণ ছাত্রের উপর হামলার ঘটনায় সাত সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারা আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিবেন এবং এটি সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল আবাসিক হল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। 


আরো সংবাদ