০৫ জুলাই ২০২২, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ৫ জিলহজ ১৪৪৩
`

অসহায় পরিবারের মাঝে জাগো ফাউন্ডেশনের সামগ্রী বিতরণ

-

বাংলাদেশে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ছে। এর ফলে সবচেয়ে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে দেশের সুবিধাবঞ্চিত মানুষ। এসব অসহায় মানুষের অধিকাংশই দৈনিক মজুরিভিত্তিক শ্রমিক। বর্তমানে, চলমান লকডাউনের কারণে এই শ্রমিকদের মধ্যে অনেকেই চাকরি হারিয়েছেন কিংবা অনেকের মজুরি কমে গেছে। এতে করে, তাদের পোহাতে হচ্ছে নানারকম ভোগান্তি। এসব অসহায় মানুষের কথা বিবেচনা করে, জাগো ফাউন্ডেশন ‘করোনা রিলিফ ফান্ড’ শীর্ষক একটি ক্যাম্পেইন চালু করেছে। এই ক্যাম্পেইনের আওতায়, চলমান প্রতিকূল পরিস্থিতিতে, দিনমজুর, হকার, রিকশাচালক ও অন্যান্য শ্রমিক, যারা অসহায়ভাবে দিনযাপন করছেন, তাদের কাছে জাগো ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবীরা খাদ্যসামগ্রী ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দিচ্ছে। ‘মানুষের কাছে এটি চ্যারিটি বা দান, তবে, আমরা একে বলি দায়বদ্ধতা’; জাগো ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা এবং নির্বাহী পরিচালক, করভি রাকসান্দ এ বিশ্বাসেই বিশ্বাসী। লকডাউন শুরুর প্রথম থেকেই সমাজের সুবিধাবঞ্চিত মানুষকে সাহায্য করার লক্ষ্যে ‘করোনা রিলিফ ফান্ড’ চালু করে জাগো ফাউন্ডেশন। প্রায় প্রতি দিনই, সংস্থাটির স্বেচ্ছাসেবকরা রায়ের বাজার ও কড়াইল বস্তিতে অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছে। ইতোমধ্যে, জাগো ফাউন্ডেশন রাজধানীর দুস্থ ১ হাজারেরও বেশি অসহায় পরিবারকে সহায়তা করেছে। এরই ধারাবাহিকতায়, ঢাকার বাইরে আরো ১০টিরও বেশি জেলায় ত্রাণ বিতরণ কর্মসূচি চালানোর পরিকল্পনা রয়েছে সংস্থাটির। এই সঙ্কটকালীন সময়ে, লজ্জার কারণে যারা মানুষের কাছ থেকে সাহায্য নিতে দ্বিধাবোধ করছে, এ রকম অনেক অসহায় মানুষ সহায়তার জন্য জাগো ফাউন্ডেশনের সাথে যোগাযোগ করেছে। একটি ফরম পূরণের মাধ্যমে এবং কয়েক ধাপে যাচাই করে সাহায্যপ্রার্থী পরিবারকে নির্বাচিত করা হয়। এরপর যাচাই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে, দুর্দশাগ্রস্ত এসব পরিবারের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী পাঠানো হবে। বিজ্ঞপ্তি।


আরো সংবাদ


premium cement