২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

এক দিন বিরতিতে সূচক ও লেনদেন বেড়েছে

-

গত মঙ্গলবার পতন হলেও আবার উত্থানে ফিরেছে শেয়ারবাজার। গতকাল উভয় শেয়ারবাজারের সব সূচক বৃদ্ধি পেয়েছে। একই সঙ্গে বেড়েছে টাকার পরিমাণে লেনদেন এবং বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দর। ঢাকা ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই ও সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।
গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৪৪০ পয়েন্টে। অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১১, ডিএসই-৩০ সূচক ১৩ এবং সিডিএসইটি সূচক ৮ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে ১০১৯, ১৫২০ ও ৯১২ পয়েন্টে। ডিএসইতে গতকাল টাকার পরিমাণে লেনদেন হয়েছে ৪৩৮ কোটি ৪২ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট, যা আগের দিন থেকে ৩১ কোটি ৬২ লাখ টাকার বেশি। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪০৬ কোটি ৮০ লাখ টাকার। ডিএসইতে গতকাল ৩৫৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৮৩টির বা ৫২ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর বেড়েছে। দর কমেছে ১২৬টির বা ৩৫ শতাংশের এবং ৪৭টি বা ১৩ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।
টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে লাফার্জ হোলসিমের শেয়ার। এ দিন কোম্পানিটির ২৩ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে ওঠে আসা খুলনা পাওয়ারের ১৫ কোটি ৮৬ লাখ টাকার এবং ১৫ কোটি ৫১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে ওঠে আসে স্কয়ার ফার্মা। ডিএসইর টপটেন লেনদেনে ওঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে : প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, সুহৃদ, কাশেম ইন্ডাস্ট্রিজ, এসকে ট্রিমস, এসএস স্টিল, এডিএন টেলিকম এবং পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স।
ব্লক মার্কেট : গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্লক মার্কেটে ১৩টি কোম্পানি লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব কোম্পানির সাড়ে ১০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর ১৬ লাখ ৫৩ হাজার ৩০০টি শেয়ার ৩০ বার হাত বদল হয়েছে। এর মাধ্যমে কোম্পানিগুলোর ১০ কোটি ৫০ লাখ ৪০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৫ কোটি ৩০ লাখ ১৯ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে স্কয়ার ফার্মার। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১ কোটি ৬৭ লাখ ৪ হাজার টাকার প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের এবং তৃতীয় সর্বোচ্চ ১ কোটি ৯ লাখ ৫ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে ব্যাংক এশিয়ার। এ ছাড়া ব্র্যাক ব্যাংকের ৬০ লাখ ২৯ হাজার টাকার, ড্যাফোডিল কম্পিউটার্সের ৮ লাখ ৪০ হাজার টাকার, ডাচ-বাংলা ব্যাংকের ১৪ লাখ ৬৪ হাজার টাকার, ইভিন্স টেক্সটাইলের ১১ লাখ ৮৮ হাজার টাকার, খুলনা পাওয়ারের ৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকার, ন্যাশনাল টিউবসের ৫ লাখ ১ হাজার টাকার, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্সের ২৭ লাখ ৮১ হাজার টাকার, সিনোবাংলার ২৯ লাখ ৬৮ হাজার টাকার, এসকে ট্রিমসের ৪১ লাখ ৬৬ হাজার টাকার এবং স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্সের ৩৯ লাখ ২১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।
অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এ দিন ১১৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৫৪০ পয়েন্টে। এ দিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৪২টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৩৭টির, কমেছে ৭৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির দর। গতকাল সিএসইতে ১৭ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।


আরো সংবাদ