০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

কলাপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মা-ছেলে নিহত

কলাপাড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় মা-ছেলে নিহত - ছবি : প্রতীকী

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ট্রলি ও অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে মুক্তা বেগমের (৪২) ও তার ছেলে জিহাদ (১০) নিহত হয়েছেন।

গতকাল শনিবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে বরিশাল থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। এর আগে শনিবার দুপুরে উপজেলার বালীয়াতলী ইউনিয়নের মুসুল্লিয়াবাদ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মুক্তা বেগম উপজেলার ধানখালী ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া গ্রামের মিঠু খানের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, জিহাদ (১০) জুনায়েত (৪) ও মিম (১২) আপন তিন ভাই বোন। কয়েক দিন আগে তাদের মা মুক্তা বেগম (৪০) তিন সন্তান ও তার শ্বাশুরি জাহানারা বেগমকে (৬৫) নিয়ে বেড়াতে গিয়েছিলেন কুয়াকাটায় দেবর কাসেমের বাড়িতে। শনিবার দুপুরে কুয়াকাটা থেকে তাদের বসতবাড়ি ধানখালী ইউনিয়নের মরিচবুনিয়া এলাকায় ফেরার পথে ট্রলি ও অটোরিকশার মুখোমুখী সংঘর্ষের শিকার হয়। এসময় ঘটনাস্থলেই শিশু জিহাদের মৃত্যু হয়। বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় তার মায়ের দু’পা। এছাড়া এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয় জিহাদের বড় বোন মীম আক্তার, ছোট ভাই জুনায়েদ (০৬) ও দাদি জাহানারাসহ অটোরিকশা আরো সাতজন যাত্রী। পরে আহত সবাইকে কলাপাড়া হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়। দু’পা বিচ্ছিন্ন মুক্তা বেগমের অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় রাতে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নিয়ে আসার পথে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে এভাবে মা ও ছেলের মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না স্বজনরা। তাদের আহাজারিতে ভারী হয়ে ওঠেছে ওই এলাকার পরিবশে।

মৃত জিহাদের চাচা রিপন জোমাদ্দার জানান, প্রথম পর্যায়ে মা-ছেলের জানাজার নামাজ ধানখালীতে তাদের নিজ বাড়িতে সকাল ১০টায় এবং বেলা ১১টায় আশ্রয়ন কেন্দ্র স্বপ্নের ঠিকানায় দ্বিতীয় দফা জানাজা নামাজ শেষে সেখানে মা এবং ছেলেকে দাফন করা হয়।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: জসিম জানান, এ ঘটনায় ট্রলির মালিক ও চালককে আসামি করে মামলা করা হয়েছে। তাদের গ্রেফতারে পুলিশের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।


আরো সংবাদ


premium cement