৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ৩ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

বরগুনায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কোপানোর অভিযোগ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে

বরগুনায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কোপানোর অভিযোগ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে -

বরগুনার আমতলীতে এক স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে পৌর শহরের সাকিব প্লাজার সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার প্রতিবাদে আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা-কর্মীরা চৌরাস্তায় বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করেন।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুর রহমান এ বিষয়টি নয়া দিগন্তকে নিশ্চিত করেছেন।

ভুক্তভোগী ওই নেতার নাম মোয়াজ্জেম হোসেন খান (৫৫)। তিনি আমতলী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি।

স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে মোয়াজ্জেম হোসেন খান সাকিব প্লাজার মোড়ে যান। এ সময় উপজেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সবুজ মালাকার, সাংগঠনিক সম্পাদক ইফতেখার আহম্মেদ তোহাসহ কয়েকজন স্বেছাসেবক লীগ সভাপতি মোয়াজ্জেমকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকেন। তিনি অচেতন হয়ে পড়লে তাকে সড়কে ফেলে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। তার অবস্থা গুরুতর হওয়ায় সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

এদিকে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে কুপিয়ে গুরুতর জখমের খবর ছড়িয়ে পড়লে তাৎক্ষণিক যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও শ্রমিক লীগ নেতাকর্মীরা হামলাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে আমতলী চৌরাস্তায় বিক্ষোভ করে সড়ক অবরোধ করেন। এ সময় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

এ ব্যাপারে কথা বলতে কয়েকবার চেষ্টা করেও অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। বিষয়টিকে কেন্দ্র করে শহরজুড়ে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

এ বিষয়ে আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়ে আমতলী হাসপাতালে পুলিশ পাঠানো হয়। এছাড়া যানবাহন চলাচলের জন্য সড়ক উম্মুক্ত করে দেয়া হয়। এ ঘটনায় জড়িতদের কোনো ছাড় দেয়া হবে না। দুষ্কৃতিকারীদের আটকের চেষ্টা চলছে।


আরো সংবাদ


premium cement