০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

মালিক-সমিতির দ্বন্দ্বে বরগুনার-পটুয়াখালী রুটে বাস চলাচল বন্ধ

মালিক-সমিতির দ্বন্দ্বে বরগুনার-পটুয়াখালী রুটে বাস চলাচল বন্ধ। - ছবি : সংগৃহীত

বরগুনা-বরিশাল-কুয়াকাটা-পটুয়াখালী-আমতলী-তালতলী রুটে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। এতে ভোগান্তিতে পড়েছে ওই রুটে চলাচলকারী হাজার হাজার বাস যাত্রী।

বুধবার সকাল থেকে এসব রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে বলে জানা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বরগুনা ও পটুয়াখালী বাস মালিক-সমিতির মধ্যে আনুপাতিক হারে বাস চলাচল নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এ নিয়ে ২০১৯ সালে বরিশালে ও ২০২১ সালে ঢাকায় বাস মালিক-সমন্বয়-পরিষদের এক সভায় দুই জেলার বাস মালিক-সমিতির মধ্যে একটি সমঝোতা করেন। সমঝোতা অনুযায়ী বরিশাল-কুয়াকাটা-পটুয়াখালী-আমতলী-তালতলী রুটে আনুপাতিক হারে দুই জেলার বাস মালিক-সমিতি বাস পরিচালনা করবেন।

বরগুনা বাস মালিক-সমিতির অভিযোগ, এ পর্যন্ত ঠিকভাবে বাস চালচল করলেও গত ১৮ মে থেকে উল্লেখিত রুটে বাস চলাচলে বাধা সৃষ্টি করে পটুয়াখালী বাস মালিক-সমিতি। তারা বরগুনা বাস মালিক-সমিতির সকল বাস পটুয়াখালী বাসস্টান্ডে আটক করে রাখার অভিযোগ করেন। এই দ্বন্দ্বের জেরে বুধবার সকাল থেকে বরগুনা বাস মালিক-সমিতির লোকজন ও শ্রমিকরা বরিশাল-পটুয়াখালী-কুয়াকাটা-তালতলী রুটে চলাচলকারী পটুয়াখালী বাস মালিক-সমিতির সকল বাস আমতলী হাসপাতাল সড়কের সামনে আটক রেখে চলাচল বন্ধ করে দেন। দুই জেলার
দ্বন্দ্বের জের ধরে বরিশাল-পটুয়াখালী-কুয়াকাটা-তালতলী রুটে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছে এই রুটে চলাচলকারী হাজার হাজার যাত্রীরা। নিরুপায় হয়ে বাস যাত্রীরা অটোরিকশাসহ বিভিন্ন যানবাহনে তাদের গন্তব্যে যাচ্ছে।

পটুয়াখালী বাস মালিক-সমিতির সভাপতি মোঃ রিয়াজ উদ্দিন মৃধা বলেন, বরগুনা বাস মালিক-সমিতি বরিশাল-কুয়াকাটা-পটুয়াখালী-আমতলী-তালতলী রুটে রেশিয় অনুযায়ী যে পরিমান বাস পাবেন তার চেয়ে বেশী পরিমাণ বাস নামিয়ে সড়কে পরিচালনা করছেন।

বাস আটকের অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, আমরা তাদের বাস আটকাইনি। উল্টো তারা আমাদের সকল বাস আটকিয়ে রেখেছেন।

বরগুনা বাস মালিক-সমিতির সভাপতি গোলাম মস্তফা কিসলু বলেন, পটুয়াখালী বাস মালিক-সমিতি আমাদের সাথে খামখেয়ালি করে বাস চলাচলে সমস্যা তৈরী করছেন। এক সপ্তাহ ধরে তারা আমাদের সকল বাস আটকে রেখে হয়রানি করছে।

বরগুনা বাস মালিক-সমিতির লাইন সম্পাদক সজল মৃধা বলেন, পটুয়াখালী বাস মালিক-সমিতি আগের সমঝোতা
অনুযায়ী বাস পরিচালনা না করে আমাদের বাস চলাচলে বাধা সৃষ্টি করছেন।

এ বিষয়ে বরগুনার জেলা প্রশাসক হাবিবুর রহমান বলেন, পটুয়াখালী ও বরগুনা বাস মালিক-সমতির মধ্যে দ্বন্দ্ব রয়েছে। এ কারনে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। যাত্রীদের দুর্ভোগ নিরসনে পটুয়াখালী ও বরগুনা বাস মালিক-সমিতির সাথে আলোচনা করে বাস চলাচলের উদ্যোগ নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement