০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ৭ জিলহজ ১৪৪৩
`

আমতলীর পায়রা নদীতে মাছ ধরা সন্দেহে হামলার অভিযোগ


পায়রা নদীতে মাছ ধরা সন্দেহে স্থানীয় জেলেদের হামলায় পাঁচ জেলে আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শুক্রবার দুপুরে আমতলী উপজেলার খেকুয়ানী এলাকার পায়রা নদীতে এ ঘটনা ঘটেছে। 

এতে নূর জামাল হাওলাদার (৩৫), আলতাফ হোসেন (৪০), অপু প্যাদা (২৫), শাহাবুদ্দিন (৩০) ও জামাল হাওলাদার (২৫) আহত হয়।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে হাসপাতালে কর্তৃব্যরত চিকিৎসক গুরুতর আহত নূর জামালকে পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

জানা যায়, উপজেলার আঠারগাছিয়া ইউনিয়নের চাউলা গ্রামের মাঝি শাহাবুদ্দিনের নেতৃত্বে পাঁচ জেলে কবাই লক্ষ্মীপাশা নদীতে মাছ শিকার শেষে শুক্রবার দুপুরে ট্রলার নিয়ে বাড়ি ফিরছিল। ট্রলারটি পায়রা নদীর খেকুয়ানী এলাকার নোঙ্গর করে। পায়রা নদীতে মাছ শিকার সন্দেহে ওই ট্রলারের জেলেদের ওপর স্থানীয় জেলে আক্কাস মৃধা, মনির প্যাদা ও আলী হোসেনসহ সাত থেকে আটজন হামলা চালায়।

আহত মাঝি শাহাবুদ্দিন বলেন, এক সপ্তাহ আগে কবাই লক্ষ্মীপাশা নদীতে মাছ শিকারে যাই। শুক্রবার পায়রা নদী হয়ে গ্রামের বাড়ী ফিরছিলাম পথিমধ্যে খেকুয়ানীর পায়রা নদীতে মাছ শিকার করা জেলে আক্কাস মৃধা, মনির প্যাদা ও আলী হোসেনসহ কয়েকজন আমাদের ওপরে হামলা করেছে। এতে আমার ট্রলারের সকল জেলে আহত হয়েছে। এ ঘটনার বিচার চাই।

অভিযুক্ত জেলে আক্কাছ মৃধা, মনির প্যাদা ও আলী হোসেন হামলার কথা স্বীকার করে বলেন, ভাবছিলাম তারা পায়রা নদীতে মাছ শিকার করতে এসেছে তাই হামলা করেছি।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার ডা: ফারাহ বলেন, নূর জামালের মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অপর জেলেদের চিকিৎসা দেয়া হয়।

আমতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একে এম মিজানুর রহমান বলেন, খবর পেয়েছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement