০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

পরাজিত প্রার্থীর বাড়িতে বিজয়ী প্রার্থীর হামলা, আহত ১০

ইউপি নির্বাচন-পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে-নির্বাচন পরবর্তী সহিংতা-হামলা
হামলার চিত্র - ছবি : নয়া দিগন্ত

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সহিংতায় নারী-পুরুষসহ অন্তত ১০ জন আহত হয়েছে।

মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের বিজয়ী ইউপি সদস্যে মো: জুয়েল হাওলাদারের নেতৃত্বে পরাজিত প্রার্থী মো: দেলোয়ার জোমাদ্দারের বসত-বাড়িতে হামলা ও ভাঙ্চুরের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের মানসুরাবাদ গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। আহত ছয়জনকে মির্জাগঞ্জ উপজেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহতরা হলেন, পরাজিত মোরগ মার্কার প্রার্থী মো: দেলোয়ার জোমাদ্দার (৫০), মোকলেছ জোমাদ্দার (৪০), আতিকুল ইসলাম (৩৫), মৌ (১৮),মারিয়া (২৩) ও মেহেরুন(১৩)।

তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে উপজেলার মির্জাগঞ্জ ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের পরাজিত মোরগ মার্কার প্রার্থী মো: দেলোয়ার জোমাদ্দারের মেয়ে মৌ-এর সাথে বিজয়ী প্রার্থীর সমার্থক জিয়ার সাথে মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাচন নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পরে মৌ-এর বাবা মো: দেলোয়ার জোমাদ্দার জিয়াকে বাধাঁ প্রদান করে। বিষয়টি জিয়া বিজয়ী প্রার্থী মো: জুয়েল হাওলাদারকে মুঠোফোনে জানালে ইউপি সদস্য তিনি তার দলবল ও দেশীয় অস্ত্র-লাঠিসোঠা নিয়ে পরাজিত প্রার্থীর বসত ঘরে হামলা করে। এ সময় তাদের পিটিয়ে গুরুত্বর জখম করে। এ ঘটনার পর মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

বিজয়ী ইউপি সদস্য প্রার্থী মো: জুয়েল হাওলাদার বলেন, আমার সমার্থক মো: জিয়ার সাথে কথা কাটাকাটির খবর শুনে আমার লোকজন সেখানে ছুটে যায় এবং আমার যাওয়ার সাথে সাথে পুলিশ ও নব নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন।

মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, এখনপর্যন্ত অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement