৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

সন্তানের ভরণ-পোষণ ও মোহরানার দাবি এক নারীর

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন মরিয়ম বেগম। - ছবি : নয়া দিগন্ত

ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার গালুয়ার পুটিয়াখালী গ্রামের মনিরুল ইসলামের মেয়ে স্বামী পরিত্যক্তা মরিয়ম বেগম নিজ সন্তানের ভরণ-পোষণ ও বিবাহের মোহরানার পাওনা আদায়ের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন।

সোমবার সকালে রাজাপুর প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে পূর্বের স্বামীর প্রতি অভিযোগ ও এসব দাবি তুলে ধরেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে মরিয়ম বলেন, গত ২৮ জানুয়ারি ২০০৫ তারিখে এক লাখ টাকা দেনমোহরে উপজেলার গালুয়া দুর্গাপুর এলাকার মৃত হালিম বেপারীর ছেলে কবির হোসেনের সাথে আমার বিয়ে হয়। আমার বাবার অর্থে কবির হোসেন (সাবেক স্বামী) প্রবাসে যান। প্রবাস থেকে এসে নানাভাবে যৌতুকের দাবিতে প্রায়ই শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করেন। তারপর বিয়েবিচ্ছেদ হলে আমি বাবার বাড়িতে অবস্থান করছি।

এর আগে দাম্পত্য জীবনে পরপর দুটি ছেলে সন্তান জিহাদ ও হাসান জন্মগ্রহণ করে। বড় ছেলে দাদা বাড়ি থাকলেও ছোট ছেলেটির ভরণ-পোষণ অতিকষ্টে অভাবী বাবার সংসারে চলে আসছে। তিনি সন্তানের ভরণ-পোষণসহ তার মোহরানার অর্থ দাবি করেন।

মরিয়ম জানান, গত দুই বছর আগে তিনি জানতে পারেন কবির অন্যত্র আরো চারটি বিয়ে করেছে তার অজ্ঞাতসারে। মরিয়ম বাবার গৃহে টানাপোড়েনের সংসারে প্রতিমাসে ছেলের ভরণ-পোষণে প্রায় ১০ হাজার টাকা ব্যয় হচ্ছে। তিনি অর্ধাহারে ও অনাহারে দিন কাটাচ্ছেন।

এ ব্যাপারে তিনি তার দেনমোহর ও খোরপোষসহ এক ছেলের ভরণ-পোষণের টাকা নিয়মিত পাবার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিষয়টি সুরাহা করার জন্য আবেদন করেছেন।



আরো সংবাদ