২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

তালতলীতে বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ধর্ষণ, অতঃপর...


বরগুনার তালতলীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কিশোরীকে (১৬) ধর্ষণের অভিযোগে শরীফুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার বেলা ১১টার দিকে তালতলী বন্দর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতারের মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেফতর যুবক তালতলী তাপবিদ্যুৎকেন্দ্রের আউট প্রসেসিং প্রকৌশলী হিসেবে কাজ করতেন। তিনি ঢাকার গাজীপুর পৌরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের পিটিপাড়া এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে শরীফুল ইসলাম (৩৫)।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী কিশোরী পরিবারের সাথে ঢাকার সাইনবোর্ড এলাকায় থাকেন। তার বড় বোনের সাথে শরীফুলের প্রায় পাঁচ বছর ধরে পরিচয়। সেই সুবাদে ওই কিশোরীর পরিবারের সাথে যোগাযোগ ছিল শরীফুলের। একপর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সাত-আট মাস ধরে তাদের মধ্যে এই সম্পর্ক চলে। চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ওই কিশোরী প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ঢাকার সাইনবোর্ড এলাকা থেকে তালতলী বন্দর এলাকার একটি ভাড়া বাসায় নিয়ে আসেন এবং সেখানে রেখে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। কিন্তু কিশোরী বিয়ের জন্য বারবার চাপ দিলেও শরীফুল টালবাহানা করেন। ভুক্তভোগী ওই কিশোরী ঘটনাটি গোপনে পাশের বাসায় জানালে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সংবাদকর্মীরা তালতলী থানা পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই কিশোরী সোমবার রাতে তালতলী থানায় শরীফুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

তালতলী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কামরুজ্জামান মিয়া জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্তকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে সোপর্দ করা হয়েছে।

 



আরো সংবাদ