৩০ জুলাই ২০২১
`

ইউপি নির্বাচন : নলছিটিতে মেম্বার প্রার্থীর বাড়িতে হামলা

আহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মোল্লা - ছবি নয়া দিগন্ত

ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার মোল্লারহাট ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এক মেম্বর প্রার্থীর বাড়িতে হামলা চালিয়েছে চেয়ারম্যান প্রার্থীর লোকজন। এ সময় প্রার্থীর বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মোল্লাকে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার বিকেলে উপজেলার কাটাখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, মোল্লারহাট ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বর্তমান ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান মোল্লা এ বছরও সদস্য প্রার্থী হয়েছেন। আগামী ২১ জুন নির্বাচনের জন্য চালিয়ে যাচ্ছেন প্রচারণা। এতে ক্ষিপ্ত হয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী অ্যাডভোকেট মাহাবুবুর রহমান সেন্টুর ভাই মিজানুর রহমান বেপারী ১৫ থেকে ২০ জনের একটি দল বিকেলে কাটাখালী গ্রামে ইউপি সদস্য প্রার্থী মিজানুর রহমান মোল্লার বাড়িতে গিয়ে হামলা চালায়। এতে বাধা দিতে গেলে মিজানের বাবা বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক মোল্লাকে পিটিয়ে আহত করা হয়। হামলাকারীরা বসতঘরের বিভিন্ন স্থানে ভাঙচুর করে।

ইউপি সদস্য প্রার্থী মিজানুর রহমান মোল্লা অভিযোগ করেন, হামলার সময় আমি বাড়িতে ছিলাম না। তারা আমাকে মেরে ফেলার জন্য এ হামলা চালিয়েছিল। হামলাকারীরা চলে যাওয়ার সময় বলে যায়, ‘মিজানকে প্রার্থী হতে নিষেধ করার পরেও কেন প্রার্থী হয়েছে। প্রচারণায় নামলে তার খবর আছে’ বলে শাসিয়ে যান মিজানুর রহমান বেপারী।

মিজানুর রহমান মোল্লা বলেন, ‘আমার বাবাকে চিকিৎসার জন্য কোথায় নিয়ে যেতে পারছি না। মোল্লারহাট চৌমাথায় তাদের লোকজন অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। এ ঘটনায় তার পরিবার নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও অভিযোগ করেন।’

হামলা অভিযোগ অস্বীকার করে মিজানুর রহমান বেপারী বলেন, মেম্বার মিজানের বাড়িতে হামলার কোনো ঘটনা ঘটেনি। বরং মিজানের নেতৃত্বে আমার ছেলে আহমেদ আল রাজির ওপর হামলা হয়েছে।

নলছিটি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহামুদ প্রিন্স বলেন, হামলার সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়েছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



আরো সংবাদ