০৮ মে ২০২১
`

বরগুনায় করোনায় নয়, মৃত্যু হচ্ছে ডায়রিয়ায়

বরগুনায় করোনায় নয়, মৃত্যু হচ্ছে ডায়রিয়ায় - ছবি- সংগৃহীত

বরগুনাসহ উপকূলীয় অঞ্চলে পানি লবণাক্ততা বেড়েছে। এতে উপকূলের জেলাগুলোতে মারাত্মকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে ডায়রিয়া। করোনাভাইরাস মহামারীর চেয়েও এখন উপকূলবাসীর কাছে ডায়রিয়া ভয়ানক রূপে আবির্ভূত হয়েছে বলে জানা গেছে। এমনকি করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে জেলায় কোনো কোভিড-১৯ রোগীর মৃত্যু না হলেও ডায়রিয়ায় দু’জনের মৃত্যুর তথ্য পাওয়া গেছে। হাসপাতালগুলোতে অধিক রোগীর চাপে পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক, নার্সসহ স্বাস্থ্যকর্মীরা।

এ দিকে তীব্র গরম, অনাবৃষ্টি ও উপকূলে লবনাক্ততা বৃদ্ধিতে বিশুদ্ধ খাবার পানি সঙ্কট দেখা দিয়েছে। বৃষ্টি না হওয়ায় পুকুরের মিঠা পানির উৎস শুকিয়ে যাচ্ছে। ভূগর্ভস্থ পানির স্তরও নিচে নেমে যাচ্ছে। এসব কারণে বিশুদ্ধ পানির ঘাটতিতে দূষিত পানি পান করে বিভিন্ন বয়সের মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

বরগুনার সিভিল সার্জনের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ইতোমধ্যে বরগুনায় ডায়রিয়ায় আক্রান্তদের মধ্যে দু’জন মারা গেছেন। আর চলতি বছর জেলায় এ পর্যন্ত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ হাজার ১৭০ জন। এর মধ্যে গত এক সপ্তাহে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ২৯২ জন।

গত এক সপ্তাহে সদর উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭৪ জন, বেতাগীতে ৩৪৮ জন, আমতলীতে ২৩১ জন, বামনায় ১০৭ জন ও পাথরঘাটা উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৩২ জন। বুধবার বিকেল পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছেন ২৭৯ জন।

দূষিত পানি ব্যবহারের ফলে ডায়রিয়া, কলেরা, আমাশয়, জন্ডিস, গ্যাস্ট্রিক, ইউরিন্যাল ইনফেকশন, চর্মরোগ, কোষ্ঠকাঠিন্য, যৌন ও ঘায়ের মতো বিভিন্ন রোগ ব্যাধি বেড়েছে বলে জানা গেছে।

এ দিকে টানা লকডাউনে ঘরবন্দি দেশের মানুষ। প্রতিদিন করোনায় আক্রান্তের পাশাপাশি দেশজুড়ে নিত্য নতুন রেকর্ড গড়ছে মৃত্যুর। তবে দেশের দক্ষিণের জেলা বরগুনায় করোনার থেকেও ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে ডায়রিয়া। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে বরগুনায় এ পর্যন্ত কোনো প্রাণহানি না হলেও ডায়রিয়ায় ইতোমধ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন দু’জন। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা দিতে বেগ পেতে হচ্ছে চিকিৎসকদেরও।

জেলা সদর হাসপাতালসহ ছয়টি উপজেলা হাসপাতালগুলো ভরে গেছে ডায়রিয়া রোগীতে। তিল ধারণের ঠাঁই নেই এসব চিকিৎসা কেন্দ্রে। বিপুল সংখ্যক রোগীর চাপে ডায়রিয়ার জন্য কলেরা স্যালাইনসহ প্রয়োজনীয় ওষুধের সঙ্কট দেখা দিয়েছে বরগুনায়।

এ বিষয়ে বরগুনার সিভিল সার্জন ডা: মারিয়া হাসান বলেন, সম্প্রতি হাসপাতালে ডায়রিয়ার রোগী বেড়েছে। পানি দূষণের কারণে মানুষ ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে বলে আমরা ধারণা করছি।

এ থেকে বাঁচতে তিনি সবাইকে বিশুদ্ধ পানি পান ও গরম খাবার গ্রহণের পরামর্শ দিয়েছেন। একইসাথে ফলমূলের ক্ষেত্রে বিশুদ্ধ পানিতে ভালোভাবে ধুয়ে খাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বরগুনার সিভিল সার্জন।



আরো সংবাদ


পাকিস্তানের আবিদ আলীর ডাবল সেঞ্চুরি সাকিব করোনা নেগেটিভ, ফলের অপেক্ষায় মোস্তাফিজ লিচু পাড়তে না দেয়ায় খুন হলেন মামা আদালতে জামিন পাওয়া মানুষের অধিকার : বিশিষ্টজনদের অভিমত খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশ নেয়ার প্রয়োজন আছে কিনা প্রশ্ন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রীর আসাদকে রক্ষায় রাশিয়ার ইসরাইলি ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহার দূরপাল্লায় প্রাইভেটকারের রাজত্ব, রমরমা ব্যবসা কোম্পানীগঞ্জে সংঘর্ষের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় আটক ৩ করোনার টিকা দ্বিতীয় ডোজ না নিলে কী হবে নোয়াখালীতে ইলেকট্রিক মিস্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা, আটক ২ কুষ্টিয়ায় ব্যবসায়ীদের সহযোগিতায় খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন হানিফ

সকল