০৮ মে ২০২১
`

নলছিটিতে পুড়িয়ে বাবুই-ছানা হত্যার দায় স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন বৃদ্ধ


ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার ভৈরবপাশা ইউনিয়নের ঈশ্বরকাঠী গ্রামের দিনমজুর জালাল সিকদার (৬০) পাখির ছানাগুলো মেরে ফেলার দায় স্বীকার করে সকলের কাছে হাত জোর করে ক্ষমা চাইলেন। তিনি বলেন, পাখির বাচ্চা মেরে ফেলা যে আইনগত অপরাধ তা আমি জানতাম না। এমন অপরাধ আর জীবনে কখনো করবো না বলে সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা
করেন।

পুড়িয়ে বাবুই পাখির ছানা মেরে ফেলার খবর জানতে পেরে নলছিটি উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুম্পা সিকদার অভিযুক্ত জালাল সিকদারকে শনিবার সন্ধ্যায় কার্যালয়ে ডেকে আনেন। বৃদ্ধ জালাল সিকদার আইন জানেন না এবং বিষয়টি ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করেন এবং আর কখনোই এমনটি করবে না বলে সকলের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নলছিটি সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহম্মদ সাখাওয়াত হোসেন, নলছিটি থানার অফিসার ইনচার্জ মোহম্মদ আলী আহমেদসহ ভৈরবপাশা ইউনিয়নের গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

উল্লেখ্য, উপজেলার ভৈরবপাশা ইউনিয়নের ঈশ্বরকাঠি গ্রামের জালাল সিকদারের ক্ষেতের ধান খাওয়ায় তিনি শুক্রবার এলাকার সিদ্দিক মার্কেটের সামনের তাল গাছে থাকা বাবুই পাখির বাসা বাঁশের মাথায় কাপড় পেচিয়ে আগুন জ্বালিয়ে পুড়িয়ে দেন। এতে পাখির বাসায় থাকা ৩৩টি বাবুই ছানা মারা যায়।



আরো সংবাদ