০৬ মার্চ ২০২১
`

মির্জাগঞ্জে গলায় ফাঁস নিয়ে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা

মির্জাগঞ্জে গলায় ফাঁস নিয়ে এক সন্তানের জননীর আত্মহত্যা - ছবি : প্রতীকী

পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জে বৈদ্যুতিক ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক সন্তানের জননী সোহাগী বেগম (২২)। শুক্রবার সকালে উপজেলার ঝাটিবুনিয়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে।

সোহাগী বেগম উপজেলার আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর ঝাটিবুনিয়া গ্রামে মো: সোহরাব হোসেনের মেয়ে।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ছয় বছর আগে উপজেলার মাধবখালী ইউনিয়নের শিশুরহাট এলাকার মো: বারেক হোসেনের ছেলের সাথে আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের উত্তর ঝাটিবুনিয়া গ্রামের মো: সোহরাব হোসেনের মেয়ে সোহাগীর সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের এক বছর পরই জন্ম নেয় একটি মেয়ে সন্তান। তার বয়স এখন পাঁচ বছর। দুই বছর আগে স্বামীর সাথে সম্পর্কের অবনতি হলে সন্তানকে নিয়ে বাবার বাড়িতে চলে আসেন সোহাগী। এ নিয়ে তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার রাতের খাবার খেয়ে নিজ কক্ষে যান তিনি। পরে শুক্রবার সকালে তার ঘুম থেকে উঠতে দেরি দেখে তার মা কক্ষের ভেতর ঢুকে দেখেন মেয়ে সোহাগী ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস নেয়া অব্স্থায় ঝুলছেন। পরে তিনি চিৎকার শুরু করেন।

এ দিকে খবর পেয়ে মির্জাগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে সোহাগীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম বলেন, লাশটি মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মির্জাগঞ্জ থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে।



আরো সংবাদ