০১ ডিসেম্বর ২০২০

৪ বছরের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে বাবা গ্রেফতার

রফিকুল ইসলাম মিলন - ছবি : নয়া দিগন্ত

বরগুনায় চার বছরের মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে বাবা রফিকুল ইসলাম মিলনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার রাতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মিলন পুলিশের কাছে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন।

গ্রেফতার মিলন বরগুনা সদর উপজেলার ঢলুয়া ইউনিয়নের ফুলঢলুয়া গ্রামের আবদুল খালেকের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মিলন পেশায় একজন রংমিস্ত্রী। এক থেকে দুই মাস ধরে ওই শিশু মেয়েকে যৌন নির্যাতন করে আসছেন তিনি। শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়লে তার মা শিশুর কাছে জানতে চায় কি হয়েছে। শিশুটি তার মাকে ব্যথার জায়গা দেখিয়ে বলে, বাবা তাকে এখানে ব্যথা দিছে।

শিশুটির মা বলেন, গত দুই মাসেরও বেশি সময় ধরে আমাদের মেয়েকে আমার স্বামী প্রায়ই পাশবিক নির্যাতন করেছেন। আমি তাকে নিষেধ করলেও তিনি এ নির্যাতন বন্ধ করেননি। বিষয়টি লোকলজ্জার ভয়ে কাউকে বলতেও পারিনি। আমার স্বামীর এমন পৈশাচিক কর্মকাণ্ডে আমি নিজেও লজ্জিত ও বিব্রত ছিলাম।

তিনি আরো বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে আমার স্বামী আবারো আমার শিশু মেয়েকে ধর্ষণ করেন। আমার স্বামীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জন্য আমি মামলা দায়ের করেছি।

এ বিষয়ে বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম তারিকুজ্জামান বলেন, বাদির অভিযোগের ভিত্তিতে মিলনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মিলন স্বীকার করেছেন ২৫ আগস্ট তার মেয়েকে প্রথম ধর্ষণ করেছেন। শিশুর জবানবন্দী ও মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য আদালতে পাঠানো হয়েছে।


আরো সংবাদ