১০ জুলাই ২০২০

ঝালকাঠিতে করোনা উপসর্গে দু’জনের মৃত্যু

ঝালকাঠিতে করোনা উপসর্গে দু’জনের মৃত্যু - প্রতীকী ছবি

ঝালকাঠির নলছিটিতে জামাল উদ্দিন হাওলাদার নামে (৬০) একজন করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ১০টায় উপজেলার রায়াপুর গ্রামের বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। এক সপ্তাহ ধরে তার শ্বাসকষ্ট, জ্বর ও সর্দি ছিল।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হক শাহিন জানান, জামাল উদ্দিন হাওলাদার আগে থেকে শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত ছিলেন। বাড়িতে বসেই চিকিৎসা নিয়েছেন। এক সপ্তাহ আগে তিনি জ্বর ও সর্দিতে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। মঙ্গলবার সকালে তার মৃত্যু হয়। বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানানোর পরে মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে সোমবার দুপুরে শাখাওয়াত হোসেন মোল্লা (৫০) নামে এক স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু হয়েছে। শহরের পৌরসভা খেয়াঘাট এলাকার বাসায় বুকে ব্যথা নিয়ে তিনি মারা যান। করোনা উপসর্গ থাকায় মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. শ্যামল কৃষ্ণ হাওলাদার। তিনি সদর উপজেলার নুরুল্লাপুর গ্রামের বাসিন্দা ও নুরুল্লাপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ডাক্তার শ্যামল কৃষ্ণ হাওলাদার বলেন, মারা যাওয়ার পর ওই শিক্ষককে হাসপাতালে আনা হয়। তার করোনা পজিটিভ ছিল কি-না তা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পরই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যাবে। এদিকে জেলাজুড়ে করোনা সংক্রমণ বেড়েই চলছে। ঝালকাঠি জেলার ৪টি উপজেলার মধ্যে সদর উপজেলায় ১৯ জন, নলছিটি উপজেলায় ১৫ জন, রাজাপুর উপজেলায় ১১ জন ও কাঠালিয়া উপজেলায় ৭ জন। ঝালকাঠি জেলায় মঙ্গলবার পর্যন্ত ৯৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানে হয়েছে এবং ৭৮৩ জনের রিপোর্ট এসেছে। এদের মধ্যে ৫২ জনের রিপোর্ট পজেটিভ ও ৭৩১ জনের নেগেটিভ রিপোর্ট এসেছে।


আরো সংবাদ