০৩ জুন ২০২০

আমফানের তাণ্ডবে মঠবাড়িয়ায় ২ জনের মৃত্যু

আমফানের তাণ্ডবে মঠবাড়িয়ায় ২ জনের মৃত্যু - ছবি : সংগৃহীত

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে বেরিবাধ ও ফসলের ব্যপক ক্ষতি সাধিত হয়েছে। ২ জনের মৃত্যু সংবাদ নিশ্চিত করা হয়েছে। মৃত ব্যক্তিরা হলেন মঠবাড়িয়া সরকারি কলেজের পিছনে শাহজাহান মোল্লা (৫৫) ও আমড়াগাছিয়া ইউনিয়নের ধুপতি গ্রামের গোলেনুর বেগম (৭০)।

বুধবার সন্ধ্যায় বাসায় যাওয়ার সময় ঝড়ো হাওয়ায় দেয়াল ভেঙ্গে পরলে তার নিচে চাপা পওে শাহজাহান মোল্লা গুরুতর আহত হন। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শাহজাহান মোলা উপজেলার দাউদখালী ইউনিয়নের গিলাবাদ গ্রামের মৃত মজিদ মোলার ছেলে। অপরদিকে ধুপতি গ্রামে বুধবার সন্ধ্যায় নিজের ঝুঁকিপূর্ণ ঘর থেকে পাশের ঘরে আশ্রয় নেয়ার জন্য যাওয়ার পথে পা পিছলে পড়ে ঘটনাস্থলে মারা যান গোলেনুর বেগম। তিনি ধুপতি গ্রামের মৃত মুজাহার বেপারীর স্ত্রী।

ঝড়ের প্রভাবে দুইদিন ধরে বিদ্যুৎ সংযোগ বিছিন্ন রয়েছে। ঘূর্ণিঝড় আমফানের প্রভাবে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গাছ চাপা পড়ে ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ঘরের টিনের চালা উড়িয়ে নিয়ে গেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বেড়িবাঁধ ভেঙে নিম্নাঞ্চল পাবিত হয়ে ব্যাপক ফসলের ক্ষতি হয়েছে। ভারী বর্ষণ ও জোয়ারের পানি বেড়ে বাঁধ ভেঙে তলিয়ে গেছে বিভিন্ন এলাকার মাছের ঘের ও ফসলি জমি। এছাড়া হাজার হাজার গাছ উপড়ে পড়েছে। কৃষি ক্ষেত ও ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। উপজেলার বলেশ্বর নদ তীরবর্তী নিম্ন্ঞ্চাল ৪/৫ ফুট পানিতে তলিয়ে যায়।

এদিকে বলেশ্বর নদ তীরবর্তী বেরিবাধ ভেঙ্গে প্লাবিত এরাকার পানিবন্দি পরিবারের মধ্যে আজ শুকনা খাবার বিতরণ করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি) রিপন বিশ্বাস।


আরো সংবাদ