০১ জুন ২০২০

খাবারের সন্ধানে রাস্তায় কর্মহীনরা, প্রশাসনের পাশাপাশি এগিয়ে আসছেন বিত্তবানেরা

করোনাভাইরাসে সারাদেশের মত কুষ্টিয়ায়ও ঘরে বন্ধি জীবন যাপন করছে মানুষ। কিন্তু খেটে খাওয়া, ছিন্নমুল, দরিদ্র, দিনমজুরদের টানা এক সপ্তাহ আয়ের পথ বন্ধ থাকায় অভাব অনটনে দিশেহারা তারা। শহর এবং শহরতলীর বিভিন্ন স্থানে মানুষেরা এখন খাবারের সন্ধানে ভিড় করছে। শহরের থানাপাড়া ছয় রাস্তা মোড়, থানামোড়, মজমপুর গেট,সাদ্দাম বাজার মোড়,কলেজ মোড়,হাসপাতাল মোড়, পাঁচ রাস্তা মোড়ে এ দৃশ্য সব সময়ের।

গড়াই নদী কুলবর্তি থানাপাড়া, কুঠিপাড়া, আমলাপাড়া, বড় বাজার এলাকার বস্তিতে বসবাসরত দিন আনি দিন খায় আয়ের হাজার হাজার পরিবারের মানুষেরা পড়েছে আরো বিপাকে। কাজ বন্ধ থাকায় আয় উপার্জণ একেবারেই শূণ্যে নেমে আসায় কয়েকদিন ঘরে থাকলেও এখন অনেকে আর ঘরে বসে থাকতে পারছে না। অনেক রিকশাওয়ালা, অটোওয়ালা রাস্তায় নামলেও যাত্রীর অভাবে এক মোড় থেকে অন্য মোড়ে ঘুরে ঘুরে হতাশ।

এদিকে জেলা প্রশাসন, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদ ও উপজেলা পরিষদ থেকে সাধ্যমত গরীব ও দিনমজুরদের মাঝে শুকনা খাবার বিতরণ করেছে। আজ বুধবার সকালে কুষ্টিয়ার সর্ববৃহত বেসরকারী প্রতিষ্ঠান দিশা এনজিও জেলার এক হাজার পরিবারের মাঝে বিতরণের জন্য ১৫ লাক টাকার খাদ্র সামগ্রী জেলা প্রশাসকের হাতে তুলে দিয়েছে।

এসময় কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী রবিউল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক ওবায়দুর রহমান, এনডিসি মোসাব্বিরুল ইসলাম, দিশার নির্বাহী পরিচালক রবিউল ইসলাম, সহকারী নির্বাহী পরিচালক রবিউল ইসলাম ইসলাম, কোষাধক্ষ্য এ্যাড, সানোয়ার হোসেন, নির্বাহী সদস্য নজরুল ইসলাম, পরিচালক আইসিডি এন্ড এস আই এস নাজমুস সালেহীন নয়ন ও সহকারী পরিচালক এইআরডি মেহেদী হাসান উপস্থিত ছিলেন।

একই সময় ঢাকাস্থ কুষ্টিয়া সমিতির সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম কুষ্টিয়ার তিন শ’ জন মানুষের জন্য শুকনা খাবার জেলা প্রশাসকের হাতে তুলে দেন। প্রতিটি প্যাকেটে এক কেজি চাউল, দুই কেজি ডাল, এক লিটার সোয়াবিন তেল, এক কেজি লবণ, এক শ’ গ্রাম শুকনো মরিচ, দুটি লাইফবয় সাবান, ১০ প্যাকেট ওরস্যালাইন, এক প্যাকেট ভিটামিন সি ট্যাবলেট রয়েছে।

সকালে কুষ্টিয়ার পুলিশ বাহিনীর উদ্যোগে দুই হাজার মানুষের মাঝে শুকনা খাবারের প্যাকেট বিতরণ করেন পুলিশ সুপার এস,এম তানভীর আরাফাত। এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুস সবুর, কুষ্টিয়া প্রেসক্লাবের সাধারন সম্পাদক আনিসুজ্জামানা ডাবলু। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে গরীবদের মাঝে খাদ্র সামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থা করেছে।

এরপরও মোড়ে মোড়ে খাবারের জন্য দাঁড়িয়ে থাকা অনেক মানুষকে খালি হাতে ঘরে ফিরে যেতে দেখা গেছে।

এদিকে কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে করোনাভাইরাস মোকাবিলা তহবিল গঠন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে এই তহবিলে সমাজের বৃত্ববানেরা জেলা প্রশাসকের এই তহবিলে অর্থ প্রদান করছেন। কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার ১০ লাখ টাকা জেলা প্রশাসকের এই তহবিলে জমা দেয়া হয়েছে।

এদিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিটি বাড়িতে খাবার পৌছে দেয়ার ঘোষণা থাকলেও তা চোখে পড়েনি। তবে শুকনো খাবার বিতরণের সমন্বয় করার জন্য প্রশাসনকে সেনাবাহিনী সহযোগিতা করবে বলে জানা গেছে।


আরো সংবাদ

গ্রিসের রাজধানী এথেন্সের সব মসজিদ ধ্বংস করা হয়েছে : এরদোগান জাপানের ভূমিকম্পের আঘাত বগুড়ায় ডাক্তার-নার্সসহ আরো ৩৫ জন করোনায় আক্রান্ত ১১ বছর আটকে রেখে যুবতীকে ধর্ষণ, ভণ্ড কবিরাজ আটক বাংলাদেশী হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের বিচারের প্রতিশ্রুতি লিবিয়ার হাসপাতালে ভর্তি সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সংক্রমণ বিবেচনায় তিনটি জোনে ভাগ হবে দেশের বিভিন্ন এলাকা লালমোহনে বিদ্যুতস্পৃষ্টে ব্যাংকারের মৃত্যু চট্টগ্রামে পাহাড় কাটার দায়ে ২৮ লাখ টাকা জরিমানা হবিগঞ্জে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, ড্রেজার ধ্বংস লিবিয়ায় ২৬ বাংলাদেশী খুন : চাঞ্চল্যকর তথ্য দিলেন হাজী কামাল

সকল