১০ ডিসেম্বর ২০২২, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

ঘাটাইলে চিমনি ছাড়াই স্বর্ণ গলাতে পোড়ানো হচ্ছে এসিড

ঘাটাইল পৌর এলাকায় স্বর্ণ পোড়ানোর কারখানায় চিমনি না থাকায় পাইপ দিয়ে বিষাক্ত ধোয়া বের হচ্ছে : নয়া দিগন্ত -

স্বর্ণ গলাতে পোড়ানো হয় নাইট্রিক এসিড। আর গয়নার সৌন্দর্য বাড়াতে ব্যবহার করা হয় সালফিউরিক এসিড। এই এসিড পোড়াতে চিমনি ব্যবহারের নিয়ম থাকলেও ঘাটাইল পৌর এলাকার স্বর্ণালঙ্কার ব্যবসায়ীরা তা মানছেন না। ২০০২ সালের এসিড নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী এটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। সম্প্রতি লোকালয়ে এসিড পোড়ানোর ফলে বিভিন্ন সমস্যার কথা উল্লেখ করে তা বন্ধ করতে ঘাটাইল পৌর মেয়র বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন ঘাটাইল বাজার রোডের বাসিন্দরা। ওই আবেদনে স্বাক্ষর করেছেন ২৮ জন ভুক্তভোগী।
ঘাটাইল পৌর এলাকাসহ উপজেলায় রয়েছে ক্ষুদ্র ও মাঝারি আকারের শতাধিক স্বর্ণের দোকান। দোকানগুলোতে স্বর্ণ পোড়ানোর কাজে অবাধে এসিড ব্যবহার হলেও তা দেখার কেউ নেই। অথচ এসিড নিয়ন্ত্রণ আইনের ৩৬ নম্বর ধারায় এ ধরনের অপরাধের ক্ষেত্রে সর্বনি¤œ তিন বছর থেকে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে। এ দিকে যত্রতত্র এসিড দিয়ে স্বর্ণ গলানোর কারণে আশপাশের জনস্বাস্থ্য ঝুঁকির মধ্যে পড়ছে।
ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: সাইফুর রহমান খান বলেন, নাইট্রিক এসিডে নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইড আছে, যা মানবদেহ ও পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর। সালফিউরিক এসিডেও প্রায় একই রকম ক্ষতি হয়। এর ফলে মানুষের শ্বাসকষ্ট, চর্মরোগ ছাড়াও হৃদযন্ত্রের সমস্যা হতে পারে।
ঘাটাইল পৌর স্বর্ণকার সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও কারখানার মালিক বিপুল চন্দ পরিবেশ দূষণের কথা স্বীকার করে বলেন, পৌর এলাকায় এসিড দিয়ে স্বর্ণ পোড়ানোর দু’টি কারখানা রয়েছে। ব্যবসায়ীরা নির্ধারিত কারখানাতেই স্বর্ণ পোড়ান। কারখানাগুলোতে লম্বা পাইপ দিয়ে ধোঁয়া বের করে দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে, যাতে পরিবেশের ক্ষতি না হয়। পরিবেশ অধিদফতরের ছাড়পত্র আছে কিনা জানতে চাইলে নেই বলে তিনি জানান।
ঘাটাইল পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ মিয়া বলেন, অভিযোগ পেয়ে এরই মধ্যে ঘাটাইল বাজার ব্যবসায়ী সমিতিকে চিঠি দেয়া হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।
টাঙ্গাইল পরিবেশ অধিদফতরের উপ-পরিচালক জমির উদ্দিন বলেন, এ বিষয়ে আমরা কোনো অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement