১৩ আগস্ট ২০২২
`

ভুরুঙ্গামারীতে বোরো ধান নিয়ে বিপাকে কৃষকরা

-

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গামারীতে বৈরী আবহাওয়া আর শ্রমিক সঙ্কটে বোরো ধান নিয়ে বিপাকে পড়েছেন কৃষকরা। ফলন ভালো হলেও এবার পাকা ধান কেটে ঘরে তুলতে বিপাকে পড়েছেন তারা।
অধিকাংশ জমির ধান এখন পাকতে শুরু করেছে। কিন্তু প্রতিদিনই বৃষ্টি হওয়ায় পাকা ধান কৃষকরা কাটতে পারছেন না। বৃষ্টির ফাঁকে ফাঁকে কিছু কিছু ধান কাটা সম্ভব হলেও ভেজা ধান বাড়িতে নিয়ে আসা ও শুকিয়ে ঘরে তোলা কষ্টকর হয়ে পড়ছে। ফলে, কোনো কোনো কৃষকের ধান পানিতে পঁচে যাচ্ছে। স্তূপ করে রাখা কারো কারো ধান থেকে চারা গঁজিয়ে ওঠছে।
কৃষকরা জানান, শ্রমিকের মজুরি বৃদ্ধি ও শ্রমিক সঙ্কটের কারণে দুশ্চিন্তার মাত্রা তাদের আরো বেড়ে গেছে। চড়া দামের মজুরি দিয়ে ধান কাটাতে হলে তাদের উৎপাদন খরচ তুলনামূলকভাবে বেড়ে যাবে। তখন উপযুক্ত মূল্যে ধান বেঁচতে না পারলে লোকসান গুণতে হবে তাদের।
তিলাই ইউনিয়নের কৃষক দুলাল জানান, তিনি তিন বিঘা জমিতে বোরোর আবাদ করেছেন। তার কিছু জমির ধান কাটা হয়েছে। যেদিন থেকে ধান কাটা শুরু সেদিন থেকেই বৃষ্টি। ভেজা ধান শুকাতে না পারায় সেগুলোতে চারা গঁজাতে শুরু করছে। বাকি জমির ধান পানিতে তলিয়ে আছে। কাটা সম্ভব হবে কি না, সন্দিহান তিনি।
একই গ্রামের কৃষাণী হাজেরা বেগম জানান, তার এক বিঘা জমির ধান কাটা হয়েছে। ওই জমিতে ২০ মণ ধান হওয়ার কথা ছিল। বৃষ্টির পানিতে ধান তলিয়ে যাওয়ায় এবার ১০ মণও হবে না বলে জানান তিনি।
পাইকেরছড়া ইউনিয়নের গছিডাঙ্গা গ্রামের আব্দুস ছাত্তার জানান, ধান কাটার কিষাণ পাওয়াই যায় না এখন। যদিও বা পাওয়া যায়, চড়া পারিশ্রমিক দিতে হয় তাদেরকে। একেক জনকে দৈনিক সাতশ’-আটশ’ টাকা মজুরি দিয়ে ধান কাটলে পরে লোকসানে পরতে হবে তাকে।
ভুরুঙ্গামারী ইউনিয়নের গোপালপুর গ্রামের সাফিউল বলেন, প্রতি বিঘা জমির ধান কাটার জন্য চুক্তিভিত্তিতে আড়াই হাজার টাকা থেকে পাঁচ হাজার টাকা নিচ্ছেন শ্রমিকরা। নিরূপায় হয়ে কৃষকেরা ওই পরিমাণ টাকা দিয়েই ধান কাটাচ্ছেন।
কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে উপজেলার ১৬ হাজার ১৯৫ হেক্টর জমিতে এবার বোরো ধানের চাষ হয়েছে। এর মধ্যে অতিবৃষ্টিতে প্রায় ১২ হেক্টর জমির ধান তলিয়ে গেছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বলেন, বোরো ধানের ফলন ভালো হয়েছে। তবে বৈশাখ মাসজুড়ে বৃষ্টিপাত হওয়ায় ধান কাটা ও মাড়াই নিয়ে কৃষকরা কিছুটা বিপাকে আছেন। উপজেলা থেকে এ বিষয়ে কৃষকদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখা হচ্ছে।


আরো সংবাদ


premium cement
ঝালকাঠির ভাসমান পেয়ারা বাগানে থাইল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত দর্শনায় গ্রাহকের লাখ লাখ টাকা দিয়ে উধাও ‘বি টাইগার্স’ ভেরিফাই হলো জনপ্রিয় নাশিদশিল্পী সাঈদ আহমদের ফেসবুক পেইজ তালেবানের আচরণে মুগ্ধ হয়ে ইসলাম গ্রহণকারী অস্ট্রেলিয়ান প্রফেসর কাবুলে পৌঁছেছেন ডিপ্লোমা কোর্স তিন বছরে শেষ করা সম্ভব: শিক্ষামন্ত্রী ক্রমাগত পিছিয়ে পড়া রুখবে কে বঙ্গবন্ধু হত্যার ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজতে কমিশনের রূপরেখা প্রস্তুত : আইনমন্ত্রী বাঙালি মুসলমানরা কেন পাকিস্তান চেয়েছিল বিএনপি এখন বর্ষাকালের পুঁটি আর মলা মাছের মতো একটু লাফাচ্ছে : তথ্যমন্ত্রী নোয়াখালীতে ক্লিনিক সিলগালা অর্থমন্ত্রীর সাক্ষাৎকার

সকল