৩০ নভেম্বর ২০২১, ১৫ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

ছাতকের ২ মেম্বার প্রার্থী জাতীয় পরিচয়পত্রে মৃত!

-

সুনামগঞ্জ ছাতকে জাতীয় পরিচয়পত্রে মৃত দেখানো দুই ব্যক্তি আসন্ন ইউপি নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন। এ ছাড়া একজন প্রার্থীর বিরুদ্ধে নিজ ওয়ার্ড থেকে অন্য ওয়ার্ডে ভোট স্থানান্তর করার অভিযোগ উঠেছে।
দায়েরকৃত অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৬ সালে সম্ভাব্য মেম্বার প্রার্থী হিসেবে ৮নং ওয়ার্ডে ব্রাক্ষণগাঁও গ্রামের আলী আহমদ নির্বাচন করার ইচ্ছা পোষণ করেছিলেন। এ বছরেও তার আগ্রহ ছিল নির্বাচনে অংশ নেয়ার। গত ১ জুলাই গোবিন্দগঞ্জ পূবালী ব্যাংক শাখায় একাউন্ট করতে গেলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানান তার (৯০১২৩৮৫৫৭৬১৭৪) জাতীয় পরিচয়পত্রটি অনলাইনে দেখাচ্ছে না। পরে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে জানতে পারেন তাকে মৃত দেখিয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রটি বাতিল করা হয়েছে।
ব্রাক্ষণগাঁও গ্রামের মৃত আবদুল আউয়ালের ছেলে কমর আলীর জাতীয় পরিচয়পত্রেও তাকেও মৃত দেখিয়ে পরিচয়পত্র বাতিল করা হয়েছে। তিনিও ২০১৬ সালে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৮নং ওয়ার্ড থেকে মেম্বারপ্রার্থী হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন। সম্প্রতি করোনার ভ্যাকসিনের জন্য জাতীয় পরিচয়পত্র (৯০১২৩৮৫৫৭৬৩০৯) নিয়ে নিবন্ধন করতে গেলে তা হয়নি। পরে ওই কার্ড নিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসে যাওয়ার পর জানতে পারেন তিনি মৃত! এ জন্য জাতীয় পরিচয়পত্রটি বাতিল করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে গোবিন্দগঞ্জ-সৈদেরগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আখলাকুর রহমান জানান, জীবিত মানুষকে মৃত দেখানো তো পাপ কাজ। তিনি এমন কাজের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। তদন্তের মাধ্যমে অন্যায়কারীদের চিহ্নিত করে দেশের আইন অনুযায়ী শাস্তি হওয়া উচিত বলে তিনি মনে করেন। পৃথক তিনটি লিখিত অভিযোগ প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ফয়েজুর রহমান বলেন, এগুলো সমাধানের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে।



আরো সংবাদ