২৮ অক্টোবর ২০২১
`

দেড় কিলোমিটার সড়কে দেড় শতাধিক পরিবারের ভোগান্তি

-

ঝালকাঠির রাজাপুরের মঠবাড়ী ইউনিয়নের বাদুরতলা গ্রামের পশ্চিম বাদুরতলা এলাকার ইউসুফ আলি হাওলাদারের বাড়ির সামনে থেকে গুদিকাটা পর্যন্ত প্রায় দেড় কিলোমিটার ভাঙাচোরা রাস্তার কারণে যুগ যুগ ধরে চলাচলে ভোগান্তি পোহাচ্ছেন দেড় শতাধিক পরিবার। স্থানীয় বারেক শিকদার, মজিবার খান, ইউসুফ আলি হাওলাদার ও মোয়াজ্জেম শিকদারসহ অনেক এলাকাবাসী অভিযোগ করে বলেন, রাস্তাটির বেহাল অবস্থা হওয়ায় বৃষ্টির মৌসুমে চরম ভোগান্তির শিকার হতে হচ্ছে এলাকাবাসীকে। বিশেষ করে দীর্ঘ দিন ধরে ভেঙে পড়ে থাকা দু’টি কালভার্টের কারণে সড়কটি এলাকাবাসীর কাছে আতঙ্ক হয়ে দাঁড়িয়েছে।
এ ছাড়া রাস্তাটি খালের পাড়ে অবস্থিত হওয়ায় কয়েকটি স্থানে ভেঙে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। ওই সড়কটি দিয়ে মঠবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বাদুরতলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ শত শত মানুষ চলাচল করে। এ ছাড়াও উপজেলার উত্তমপুর, বদনীকাঠি, মঠবাড়ী গ্রাম ও বাদুরতলা বাজারের লোকজন খুব কষ্টে চলাচল করছে। এ বিষয়ে স্থানীয় বর্তমান ইউপি সদস্য মাহাতাব হাওলাদার বলেন, সড়কটি মঠবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ ভবনের দক্ষিণ পাশের খালের পাড়ে অবস্থিত। ওই পরিষদের সামনে দিয়ে খাল পারাপারের কাঠের পুলটি ভেঙে যাওয়ায় ওই স্থানে একটি সেতু নির্মাণের চেষ্টা চলছে। সেতু নির্মাণের পরে ওই সড়কটি নির্মাণ করা হবে। তিনি আরো বলেন, স্থানীয় সাবেক মেম্বর মোস্তাফিজুর রহমান গত চার বছর আগে ওই সড়কে এক শ’ গজের মতো স্থানে ইটের সোলিং করেছিলেন তা-ও ভেঙেচুরে শেষ হয়ে গেছে।
এ বিষয়ে মঠবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়োরম্যান জালাল আহম্মেদ বলেন, আমি নবনির্বাচিত। এখনো কার্যক্রম শুরু করতে পারিনি। তবে ভবিষ্যতে সড়কটি নির্মাণ করা হবে।

 



আরো সংবাদ


সাইফউদ্দিনের বিশ্বকাপ শেষ, দলে ফিরলেন রুবেল (২৪১৭৬)প্রয়োজনে সেনাবাহিনীকে সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর (১৭৪০৭)কাঁচপুরের বিশাল কারখানা বন্ধের পেছনে কারণ কী? (১৪৪৮৪)কেন ওভারটোন সেতুতে আত্মহত্যা করে কুকুররা (১৩৬২১)স্ত্রীকে বিক্রি করে স্মার্টফোন কিনল নাবালক স্বামী! (১২৫৩৮)পাকিস্তান জেতায় লাভ ভারতীয়দের! (১১৩৩৩)ওয়াকার ইউনিসের মন্তব্যে ক্ষুব্ধ ভারতীয় সাবেক ক্রিকেটার (৭৯৫৪)নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের জয়ে ভারত আরো চাপে! (৭৬৭৪)ভারতে ফের ডুবোজাহাজের তথ্যপাচার, ৩ নৌ-কর্মকর্তা গ্রেফতার (৬৭৩৯)নির্বাচনের বিষয়ে বাংলাদেশের মানুষ সিদ্ধান্ত নেবেন : ডিকসন (৬৬৬৪)