২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭ আশ্বিন ১৪২৮, ১৪ সফর ১৪৪৩ হিজরি
`

পানি আটকে মাছ শিকার তলিয়ে গেছে আমন ক্ষেত

-

সøুইসগেট আটকে মাছ শিকার করায় বন্ধ হয়ে গেছে পানি নিষ্কাশন। তাতে এক হাজার ৯২৯ হেক্টর জমির আমনের বীজতলা পানির নিচে তলিয়ে থাকায় বীজ পচে যাচ্ছে। দ্রুত জলকপাট খুলে পানি নিষ্কাশনের দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী কৃষকরা।
স্থানীয় সূত্র জানায়, বঙ্গোপসাগরের লঘু চাপের প্রভাবে গত চার দিনের টানা বৃষ্টিতে আমতলী উপজেলায় তীব্র জলাবদ্ধার সৃষ্টি হয়েছে। সøুইসগেট দিয়ে পর্যাপ্ত পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় আমনের বীজতলা পানির নিচে তলিয়ে গেছে। বৃষ্টি কমে গেলেও জলাবদ্ধতা কমেনি। উপজেলায় খেকুয়ানী, গুলিশাখালী, গোজখালী, আঙ্গুলকাটা, মহিষকাটা, আমড়াগাছিয়া, চাউলা, ডালাচারা, কেওয়াবুনিয়া, টেপুরা, সোনাউঠা, ঘুঘুমারী, জোলেখা, পশুরবুনিয়া, আমতলা ও বান্দ্রাসহ ৬৫টি সøুইসগেট রয়েছে। সøুইসগেটগুলো স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল নিয়ে সেখানে মাছ শিকার করছেন।
স্থানীয়দের অভিযোগ, মাছ শিকারের সুবিধার্থে পানি নিষ্কাশন দখলবাজদের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে। এতে সøুইসগেটগুলো দিয়ে পর্যাপ্ত পানি নিষ্কাশন হচ্ছে না। আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের আমতলা জলকপাট দখল করে স্থানীয় প্রভাবশালী মাহবুব মাতব্র ও মোস্তফা গাজী জাল ফেলে মাছ শিকার করছেন। তারা দিয়ে পানি নিষ্কাশন করতে দিচ্ছেন না। এতে ইউনিয়নের উত্তর সোনাখালী, দক্ষিণ সোনাখালী, পশ্চিম সোনাখালী, আমতলা, চাউলা, গোডাঙ্গা, কাঠালতলা ও পশ্চিম আঠারোগাছিয়া এলাকায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। অপর দিকে হলদিয়া ইউনিয়নের জোলেখা সøুইসগেট আটকে স্থানীয় খবির মোল্লা, মোখলেস ও কাঞ্চন খান জাল পেতে মাছ শিকার করছেন। ওই সøুইসগেট দিয়েও প্রয়োজন অনুযায়ী পানি নিষ্কাশন না হওয়ায় হলদিয়া ইউনিয়নের অধিংকাংশ গ্রামে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে।
গুলিশাখালী ইউনিয়নের ডালাচারা গ্রামের কুটি মিয়া হাওলাদার বলেন, হানিফা ও রুহুল মুন্সি, হেলাল খান, আইউব আলী, শুনু ফকির, মতলেব মৃধা ও সেফাজ গাজী ডালাচারা ও গুলিশাখালী সøুইসগেট আটকে মাছ শিকার করছেন।
এ দিকে আমতলা সøুইসগেট আটকে মাছ শিকারকারী মোস্তফা গাজী বলেন, সøুইসগেট দিয়ে পর্যাপ্ত পানি নামছে। যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা মিথ্যা।
আমতলী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সিএম রেজাউল করিম বলেন, বৃষ্টিপাতে উপজেলার জলাদ্ধতায় এক হাজার ৯২৯ হেক্টর আমনের বীজতলা পানির নিচে তলিয়ে রয়েছে। গত চার দিনেও জলাবদ্ধতা কমেনি।
আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নাজমুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। কৃষকের দুর্ভোগ লাঘবে খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।



আরো সংবাদ


বিএনপিবিহীন ইউপি নির্বাচনেও সহিংসতা : মূলে ‘শিওর শট’! করোনাকালেও অর্থনীতি শক্তিশালী অবস্থানে : খাদ্যমন্ত্রী ‘ক্রনিক মায়েলয়েড লিউকোমিয়া নিয়ে আতঙ্ক নয়’ পার্লামেন্টের দু’এমপিকে জেলে পুরল তিউনেসিয়ার সামরিক আদালত প্রধানমন্ত্রীর এসডিজি পুরস্কার বাংলাদেশের ইতিহাসে মাইলফলক হয়ে থাকবে : সেতুমন্ত্রী স্বামীর ঘরে ফিরতে কবিরাজের কাছে গিয়ে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূ ট্রাক-কাভার্ডভ্যান মালিক-শ্রমিকদের ধর্মঘট প্রত্যাহার ইলিশের ২৩ টনের প্রথম চালান বেনাপোল দিয়ে ভারতে রফতানি সাফের জন্য দল ঘোষণা করল বাফুফে বিশ্ব নেতৃত্বকে তালেবানের সাথে সম্পর্ক রাখতে বলল কাতার চীন এ বছর বিশ্বকে ২০০ কোটি ডোজ ভ্যাকসিন দেবে : শি জিনপিং

সকল